হঠাৎ ভয়ঙ্কররূপে করোনা—চট্টগ্রামে ৪ মৃত্যু, শনাক্ত ২০০ ছুঁই ছুঁই

0

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে করোনায় প্রাণহানি কোন মতেই থামছে না। মৃত্যুর সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুও। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা কেড়ে নিল আরও ৪ জনের প্রাণ। একই সময়ে নতুনভাবে করোনা শনাক্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯০ জনে। আক্রান্তদের মধ্যে নগরের ১২৮ জন এবং উপজেলার ৬২ জন।

এই নিয়ে চট্টগ্রামে শনাক্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াল ৫৬ হাজার ১৭১ জনে। এদের মধ্যে নগরের ৪৪ হাজার ২২৮ জন এবং ১১ হাজার ৯৪৩ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। অন্যদিকে, করোনায় মৃত্যু বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৬১ জনে। এদের মধ্যে ৪৬২ জন নগরের এবং ১৯৯ জন উপজেলার বাসিন্দা।

সোমবার (২১ জুন) সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

তথ্য অনুযায়ী, এইদিন কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাব ও চট্টগ্রামের সরকারি-বেসরকারি ১০টি ল্যাবে ৯৯২ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৫৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৪৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ১৯ জন নগরের, ৩০ জন উপজেলার।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ২০১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে শনাক্ত হয় ২১ জন। এদের ১৮ জন নগরের, ৩ জন উপজেলার বাসিন্দা।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ৮৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়। যাদের ১৫ জনই নগরের, বাকি ২ জন উপজেলার।

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ১১৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২২ জনের করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে। যাদের মধ্যে ১৬ জন নগরের এবং ৬ জন বিভিন্ন উপজেলার।

এছাড়া বেসরকারি ল্যাবগুলোর মধ্যে ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাব ৭৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৯ জনের করোনা পজিটিভ আসে। এদের ১৫ জন নগরের, ৪ জন উপজেলার।

শেভরণ ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ২১৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে ৭ জন নগরের এবং ১০ জন উপজেলার বাসিন্দা।

চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ১৬ জনেন নমুনা পরীক্ষা করে ৯ জনের দেহে ভাইরাসটির উপস্থিতি পাওয়া গেছে। এদের ৭ জনই নগরের, বাকি ২ জন উপজেলার।

জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) ৪৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে ২১ জন নগরের এবং ৪ জন উপজেলার।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল সেন্টার ল্যাবে ১৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নগরের ৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

এপিক হেলথ কেয়ার ল্যাব ১৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নগরের ৪ জনের শরীরের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ৪৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব মিলেছে।

এদিন পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোনো নমুনা পরীক্ষা করা হয়নি।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm