স্বামীর কোদালের আঘাতে প্রাণ হারাল চকরিয়ার নয়নমণি

0

কক্সবাজারের চকরিয়ায় পারিবারিক বিরোধের জেরে স্বামীর কোদালের আঘাতে স্ত্রী নয়নমণি (২৮) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। এ ঘটনায় স্বামী জালাল উদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) বিকাল ৩টায় উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের পরিষদ পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বুধবার (২৩ অক্টোবর) দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (চমেক) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। নিহত নয়নমণি ওই এলাকার জালাল উদ্দিনের স্ত্রী।

আটক জালাল উদ্দিন একই উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের পরিষদ পাড়া এলাকার খুইল্যা মিয়ার ছেলে। তাদের সংসারে এক ছেলে ও এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ১০ বছর পূর্বে চকরিয়া উপজেলার সাহারবিল পরিষদ পাড়া এলাকার খুইল্যা মিয়ার ছেলে জালাল উদ্দিনের সঙ্গে বিয়ে হয় একই এলাকার নয়নমণির। বিয়ের পর তাদের দাম্পত্য জীবন সুখের কাটছিলো। নয়নমণির সংসারে ৯ বছরের এক ছেলে ও ৩ বছরের এক কন্যা সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকে তাদের সংসারে ঝগড়া বিবাদও হয়নি। মঙ্গলবার দুপুরে জালাল উদ্দিন ও তার স্ত্রী নয়নমণির সাথে পারিবারিক তুচ্ছ বিষয় নিয়ে তর্কাতর্কি হয়। একপর্যায়ে জালাল উদ্দিন স্ত্রী নয়নমণিকে কোদাল দিয়ে তার মাথায় স্বজোরে আঘাত করলে সে অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটে পড়ে। পরে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় নয়নমণিকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠায়। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নয়নমণির মৃত্যু হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মর্তা (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান। তিনি বলেন, ‘ঘটনার দিন রাতে নিহতের চাচা মোহাম্মদ হোসেন বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় পুলিশ ঘাতক স্বামী জালাল উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে। জালালকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।’

এএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন