s alam cement
আক্রান্ত
৫৪৮০৭
সুস্থ
৪৬১৯১
মৃত্যু
৬৪২

সৌদি আরবও ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথড কিনতে চায় বাংলাদেশ থেকে

কেনার কথা পাকাপাকি করেছে ভারতের ৭ রাজ্যসহ ভুটান

0

বাংলাদেশ থেকে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথড কিনতে চায় সৌদি আরবও। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানতে চেয়েছেন তারা কিভাবে নেবে— মূল লাইন থেকে নাকি কক্সবাজার থেকে? এরই মধ্যে বাংলাদেশ থেকে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথড কেনার কথা নিশ্চিত করেছে ভারতের সাতটি রাজ্য ও ভুটান।

মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা শেষে এসব তথ্য জানিয়েছেন পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য জ্যেষ্ঠ সচিব ড. শামসুল আলম।

এদিন একনেক সভায় ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ‘বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্থাপন’ শীর্ষক প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়। চলতি বছরের অক্টোবর থেকে ২০২৪ সালের জুনের মধ্যে ৬৯৩ কোটি ১৭ লাখ টাকা খরচে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

জ্যেষ্ঠ সচিব ড. শামসুল আলম বলেন, ‘আমাদের পূর্বাঞ্চলে যে সেভেন সিস্টার্স রয়েছে, সেখানে কিছু কিছু ব্যান্ডউইথ সার্ভিস আমরা তাদের দিচ্ছি। এটা আমরা দিতে থাকবো। ভুটান আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে তারা আমাদের কাছ থেকে ব্যান্ডউইথ কিনবে। সেক্ষেত্রে আমাদের একটা সুযোগ আছে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের। আইসিটির সচিব জানিয়েছেন, সৌদি আরবও ব্যান্ডউইথ আমাদের কাছ থেকে নিতে চাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী জানতে চেয়েছেন তারা কীভাবে নেবে, আমরা মূল লাইন থেকে দেব নাকি কক্সবাজার থেকে? তখন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী বলেছেন, মূল লাইন থেকে সৌদি আরবকে দিতে পারবো। এটি বোধহয় আমাদের অপেক্ষায় থাকতে হবে যে, তারা কীভাবে নেয় বা আমরা কীভাবে দিই। সেভেন সিস্টার্স ও ভুটানের বিষয়টা নিশ্চিত হয়েছে, আমরা তাদের যথাযথভাবে সেবা দেব।’

উল্লেখ্য, ‘ডিজিটাল সংযোগের জন্য টেলিকমিউনিকেশন নেটওয়ার্ক আধুনিকীকরণ’ প্রকল্পের প্রথম সংশোধন আনা হয়েছে। প্রকল্পটির মূল খরচ ছিল ২ হাজার ৫৭৩ কোটি ৪০ লাখ টাকা। সংশোধনীতে ৭৪১ কোটি ৫৪ লাখ বাড়িয়ে করা হয়েছে ৩ হাজার ৩১৪ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। প্রকল্পটি ২০১৭ সালের জুলাইয়ে শুরু হয়েছে। ২০২০ সালের জুনে শেষ হওয়ার কথা ছিল। সংশোধনীতে মেয়াদ বাড়িয়ে করা হয়েছে ২০২২ সালের জুন পর্যন্ত।

সিপি

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm