রাবিপ্রবিতে সেমিস্টার ফি এক লাফে বাড়লো ১৬৫০ টাকা, শিক্ষার্থীদের আপত্তি

রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবিপ্রবি) ম্যানেজমেন্ট বিভাগে সেমিস্টার ফি এক লাফে ১ হাজার ৬৫০ টাকা বাড়ানো হয়েছে। এ নিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে অসন্তোষ।

সোমবার (১৭ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক দপ্তরের দেওয়া এক নোটিশে পূর্বের সেমিস্টার ২ হাজার ৫৬০ টাকার পরিবর্তে ৪ হাজার ২১০ টাকা ধরা হয়েছে। তবে অনাবাসিক শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে পূর্বের মতো হল ফি বাবদ ৩০০ টাকা কম নেওয়া হবে। এদিকে হঠাৎ করে সেমিস্টার ফি’তে ১ হাজার ৬৫০ টাকা যোগ করায় আপত্তি জানিয়েছে বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার দুপুরে (১৮ জুলাই) বাড়তি সেমিস্টার ফি বাতিলের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের (ভিসি) সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছে শিক্ষার্থীরা। এই সময় বিদ্যালয়ের উপাচার্য বাড়তি সেমিস্টার ফি কমানোর আশ্বাস দিয়েছেন। তবে এনিয়ে এখনও লিখিত নোটিশ জারি করেনি বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক শাখা। শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সেমিস্টার নিয়ে আলাপকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর জুয়েল সিকদার ও ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান নেইংম্রাচিং চৌধুরী ননী উপস্থিত ছিলেন।

ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থীরা জানান, বিগত সময়ের নির্ধারিত সেমিস্টার ফি’র তুলনায় নতুন নোটিশে ১ হাজার ৬৫০ টাকা বাড়তি ধরা হয়েছে। সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষে বাড়তি সেমিস্টার ফি দেওয়া অনেক বেশি কষ্টসাধ্য ব্যাপার। রাবিপ্রবিতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল ও পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রান্তিক এলাকার গরীব শিক্ষার্থীরাও পড়াশোনা করছে। যেখানে রাঙামাটি শহরে শিক্ষার্থীদের দৈনন্দিন ব্যয়ভার বহন করা কষ্ট কর, সেখানে বাড়তি সেমিস্টার ফি গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে। খাত উল্লেখ করে শিক্ষার্থীদের থেকে টাকা আদায় করা হলে বিষয়টি টাকা বিনিময়ে শিক্ষা গ্রহণের মতো পর্যায়ে দাঁড়ায়। আমরা শিক্ষায় বাণিজ্যিকীকরণ বন্ধ চাই।

বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, পূর্বে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সেমিস্টার ফি হিসেবে খাত অনুযায়ী বেতন ফি ৩৬০ টাকা, কোর্স রেজিস্ট্রেশন ফি ৪৫০ টাকা, পরীক্ষা ফি ৮০০ টাকা, চিকিৎসা ফি ৫০ টাকা, ছাত্র কল্যাণ ফি ৫০, খেলাধুলা ফি ৫০ টাকা, গ্রেডশিট/মার্কশিট ফি ২৫০ টাকা, বিদ্যুৎ ফি ১৫০ টাকা, ধর্মীয় অনুষ্ঠানাদি উদযাপন ফি ৫০ টাকা, আবাসিক শিক্ষার্থীদের হল ফ্রি ৩০০ ও প্রবেশপত্র ফি ৫০ টাকাসহ মোট ২৫৬০ নেয়া হতো।

তবে সোমবার (১৭ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া নোটিশে পরীক্ষা ফি ৮০০ টাকার পরিবর্তে ১৫০০ টাকা; চিকিৎসা, ছাত্র কল্যাণ, খেলাধুলা ও ধর্মীয় অনুষ্ঠান উদযাপন খাতে ৫০ টাকার পরিবর্তে ১০০ টাকা করে মোট ৯০০ টাকা বৃদ্ধি করা হয়। এর বাইরে পরিবহনখাতে নতুন করে যোগ করা হয়েছে আরও ৭৫০ টাকা। বাড়তি হিসাবে ১ হাজার ৬৫০ টাকা যোগ হয়ে মোট সেমিস্টার ফি দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ২১০ টাকা।

Yakub Group

বাড়তি সেমিস্টার ফি বাতিলের দাবির মুখে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন মৌখিকভাবে পরীক্ষা ফি, চিকিৎসা, ছাত্র কল্যাণ, খেলাধুলা ও ধর্মীয় অনুষ্ঠান উদযাপন খাতে বাড়তি যোগ করা ফি বাদ দেওয়া হবে বলে আশ্বস্ত করেছে বলে জানায় শিক্ষার্থীরা। তবে পরিবহনখাতে নতুন করে ৭৫০ টাকা দেওয়ার জন্য নোটিশে বলা হলেও ৬০০ টাকা প্রদানের জন্য বলা হয়েছে। সেই হিসাবে আগের ২৫৬০ টাকা সেমিস্টার ফি’র সঙ্গে ৬০০ টাকা পরিবহন ফি যোগ হবে।

এই প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর জুয়েল সিকদার বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা সেমিস্টার ফি নিয়ে কিছু দাবি জানিয়েছে। এরমধ্যে পরিবহনখাতে যে ৭৫০ টাকা রিক্রুট করা হয়েছে, সেটা ৬০০ টাকায় কমিয়ে আনা হয়েছে। আর পরীক্ষার ফি কমিয়ে আগের ৮০০ টাকাই নেওয়া হচ্ছে। এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য একাডেমিক শাখা জানতে পারবেন।’

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক দপ্তরের সহকারী রেজিস্ট্রার মাহবুব আরা বলেন, ‘এই ব্যাপারে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ম্যাডামের (ভিসি) আলোচনা হয়েছে। কোন খাতে কত টাকা কমানো হয়েছে- এসব বিষয়ে অফিসিয়ালি তথ্য জানাতে পারব না, কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ম্যাডামের সঙ্গে আলোচনার সময় প্রক্টরও উপস্থিত ছিলেন। তিনিও বিষয়টি জানেন। তবে বলতে পারি, শিক্ষার্থীরা ম্যাডামের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছে।’

এদিকে রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. সেলিনা আখতারের সেলফোনে একাধিবার চেষ্টা করেও সংযোগ পাওয়া যায়নি।

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!