s alam cement
আক্রান্ত
১০২১৮২
সুস্থ
৮৬৮৫৬
মৃত্যু
১৩২১

সুজনেরও ভিন্ন সুর সিআরবি বিতর্কে, গণভবন উন্মুক্ত দেওয়ার দাবি (ভিডিও)

‘সিআরবিতে কোনো আন্দোলন হচ্ছে না’

0

হাসপাতাল নির্মাণের বিরোধিতা করে চট্টগ্রামের সিআরবিতে কোনো আন্দোলন হচ্ছে না— এমন মন্তব্য করে সেখানে যা হচ্ছে সেটাকে ‘সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ’ বলে অভিহিত করেছে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন। এছাড়াও কিছু লোক প্রধানমন্ত্রী ও জনগণের মধ্যে ‘একটা বিরোধের পাহাড়’ গড়ার চেষ্টা করছে বলে মন্তব্য করে গণভবনকে ‘মানুষের জন্য উন্মুক্ত’ করে দিতেও প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান তিনি।

বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) বিকাল সাড়ে তিনটায় সিআরবি চত্বরে নাগরিক উদ্যোগে আয়োজিত ‘পাখির বাসা স্থাপন’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন খোরশেদ আলম সুজন।

সিআরবিতে কোনো আন্দোলন হচ্ছে না মন্তব্য করে ওই অনুষ্ঠানে সুজন বলেন, ‘এখানে অনেকে বলে আন্দোলন। না আন্দোলন না। এটা হল সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ। আন্দোলন মানে অনেকে মনে করে জ্বালাও পোড়াও, মার, কাড, ছিড়্— এখানে তেমন কিছু নাই।’

খানিক পরেই ‘সিআরবির আন্দোলনকে সরকার অপছন্দ করছে না’ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘চট্টগ্রামবাসীর এই আন্দোলনকে উনারা খুব একটা অপছন্দ করতেছেন না। কেননা সরকারের পক্ষ থেকে এই আন্দোলনে বাধা দেওয়া হইছে?’

চট্টগ্রামের কেউ সিআরবিতে হাসপাতাল চায় না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘কে আসছে কে গেছে জানি না। আমরা চট্টগ্রামের সব মানুষ একত্রে আছি। চট্টগ্রামের কেউ চায় না, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনার কাছে অনুরোধ জানাচ্ছি কিছু লোক আপনার ও জনগণের মধ্যে একটা বিরোধের পাহাড় গড়ার চেষ্টা করতেছে। আপনার হাজার হাজার ভাল কাজকর্মগুলো থেকে মানুষের দৃষ্টিকে অন্য দিকে সরিয়ে দেওয়ার জন্য উল্টাপাল্টা কাজকেও ওখানে ঢুকায় দিচ্ছে। সুতরাং আপনি মেহেরবানি করে গণভবনের সমস্ত দরজা মানুষের জন্য উন্মুক্ত করে দিন।’

Din Mohammed Convention Hall

পরে সিআরবি এলাকাজুড়ে পাখির নিরাপদ প্রজনন ও অভয়ারণ্য গড়ে তুলতে ‘চাটগাঁবাসীর হৃদয়জুড়ে একটি আশা, সিআরবিতে থাকবে শুধু পাখির বাসা’ শীর্ষক কর্মসূচিতে সিআরবির গাছে গাছে শতাধিকেরও ওপর মাটির পাত্র স্থাপন করেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক প্রশাসক এবং চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন।

এ সময় তিনি বলেন, ‘এক সময় প্রাচ্যের নগরী খ্যাত চট্টগ্রাম ছিল গাছগাছালিতে পরিপূর্ণ। গাছে গাছে কিচিরমিচির করা আগেকার পাখিগুলো প্রায় বিলুপ্তির পথে। শুধুমাত্র সিআরবি চত্বরে আসলে সেই সবুজ প্রকৃতির ঘ্রাণ পাওয়া যায়। পাখিদের কলকাকলিতে মুখরিত হয়ে উঠে সন্ধ্যাবেলার সিআরবি। কিন্তু হাসপাতালের দোকানদারি আর নষ্ট লোকের পকেট ভারির নামে সেই সবুজ প্রকৃতি ধ্বংসের জন্য উম্মাদ হয়ে উঠেছে একশ্রেণীর অর্থলিপ্সু গোষ্ঠী। তাই এদের হাত থেকে সিআরবির সবুজ প্রকৃতি বাঁচাতে এবং পাখিদের নিরাপদ আবাসস্থল গড়ে তুলতে পাখির বাসা স্থাপনের উদ্যোগ শুরু করে দিলাম আমি।’

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি ‘গণভবনের সমস্ত দরজা মানুষের জন্য উন্মুক্ত’ করে দেওয়ার সুজনের আহ্বানের বিষয়ে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের এক নেতার দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে ওই নেতা এ বিষয়ে বক্তব্য দিতে বিব্রত বোধ করছেন জানিয়ে বলেন, ‘গণভবনের দরজা কি তাহলে এতোদিন ধরে বন্ধ আছে? আওয়ামী লীগের পদধারী একজন নেতার কাছ থেকে এমন বক্তব্য আশা করি না।’

এআরটি/সিপি

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm