সীতাকুণ্ডে পুলিশের গুলিতে আহত ৩০, ইট-পাটকেলে পুলিশও জখম

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের আলীনগর এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে সন্ত্রাসীদের ইট-পাটকেল হামলার শিকার হয়েছেন প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গুলি ছুঁড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় উভয় পক্ষের অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

সীতাকুণ্ডে পুলিশের গুলিতে আহত ৩০, ইট-পাটকেলে পুলিশও জখম 1

আহতদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ হয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেলে ভর্তি হয়েছেন আলী রাজ হাসান সাগর (২৪), আনসার বাবুল মন্ডল, আমেনা বেগম (৫০), মো. বাবুল (৩৫), মো. পারভেজ (২০) ও আমেনা বেগম (৩০)। আহতদের মধ্যে আলী রাজ হাসান সাগরের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানান চিকিৎসক। এছাড়া চট্টগ্রামের বিভিন্ন ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন অন্যরা।

বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে সীতাকুণ্ডের সলিমপুরের বায়েজিদ সড়কের উভয় পাশে পাহাড় কেটে গড়ে তোলা দোকানসহ স্থাপনা উচ্ছেদের সময় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির পাইপ লাইনের ওপর নির্মিত ঝুঁকিপূর্ণ স্থাপনা এবং ফুটপাত ও পাইপলাইন সংলগ্ন এলাকায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের জন্য বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সীতাকুণ্ডের সলিমপুরের বায়েজিদ সড়কে উচ্ছেদ শুরু করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। প্রায় ৭০টির মতো অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করার পর দুপুর ১২টার দিকে ঘটনাস্থলে আসেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. মমিনুর রহমান, চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার এসএম শফিউল্লাহ ও র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক কর্ণেল এমএ ইউসুফসহ প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা।

Yakub Group

পরে তারা জঙ্গল সলিমপুরের আলীনগরে র‌্যাব ক্যাম্পের জন্য নির্ধারিত স্থান পরিদর্শনে যান। এ সময় পাহাড়ের চারদিক থেকে হঠাৎ তাদেরকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে সন্ত্রাসীরা। এ সময় ইট-পাটকেলের আঘাতে আহত হন সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিরাপত্তারক্ষী আনসার সদস্য মো. নজরুলসহ বেশ কয়েকজন পুলিশ ও অন্যান্য বাহিনীর সদস্য এবং সরকারি কর্মকর্তা।

এ সময় আত্মরক্ষায় বাধ্য হয়ে র‌্যাব ও পুলিশ পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। ইট-পাটকেল ছোঁড়া ও গুলির ঘটনায় উভয়পক্ষের অন্তত ৩০ জনেরও বেশি আহত হয়েছে। গুলিবিদ্ধ হয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেলে ভর্তি হয়েছেন আলী রাজ হাসান সাগর (২৪), আনসার বাবুল মন্ডল, আমেনা বেগম (৫০), মো. বাবুল (৩৫), মো. পারভেজ (২০) ও আমেনা বেগম (৩০)। আহতদের মধ্যে আলী রাজ হাসান সাগরের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে চিকিৎসক।

এ বিষয় জানতে চাইলে সীতাকুণ্ড মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সুমন বণিক বলেন, ‘ডিসি স্যার, এসপি স্যারসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা যখন আলীনগরে প্রবেশ করেন ঠিক তখন চারপাশ থেকে ভূমিদস্যুরা ইট-পাটকেল নিয়ে হামলা চালায়। এতে আমাদের ৫-৭ জন পুলিশ সদস্য ও একজন আনসারসহ আরও কয়েকজন আহত হন। পরে আত্মরক্ষার্থে আমদেরও পাল্টা গুলি ছুঁড়তে হয়।’

এদিকে সীতাকুণ্ডের ইউএনও মো. শাহাদাত হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বায়েজিদ সড়কের পাশে অবৈধভাবে স্থাপন করা দোকান ও অন্যান্য স্থাপনা উচ্ছেদ করে সীতাকুণ্ড, হাটহাজারী ও কাট্টলী থানার নির্বাহী অফিসার ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। দুপুর ১২টার দিকে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসকসহ প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আলীনগরে র‌্যাবের জন্য নির্ধারিত স্থান পরিদর্শনে যান। এ সময় আগে থেকে সেখানে হামলার উদ্দেশ্যে দুষ্কৃতকারীরা পাহাড়ের ওপর থেকে বৃষ্টির মতো ইট-পাটকেল ছুঁড়তে থাকে। এ সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও পাল্টা গুলি চালান। এতে আনসার, পুলিশ সদস্য ও হামলাকারীদের অনেকেই আহত হন। তাদের মধ্যে কেউ কেউ হাসপাতালেও ভর্তি আছেন।’

এ বিযয় জানতে চাইলে সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘আলীনগরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে গেলে পুলিশ, আনসারসহ সাতজন হামলায় আহত হয়েছেন। আত্মরক্ষার্থে আমরাও কমপক্ষে ৩২৯ রাউন্ড গুলি ছুঁড়েছি।’

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm