সীতাকুণ্ডের ইউপি মেম্বারকে কুপিয়ে হত্যা, আসামি আজিজ গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মুমিনুল হককে কুপিয়ে হত্যা মামলায় আজিজুল হক ওরফে ফারুককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুণ্ড থানার বারবকুণ্ড বাজার এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

র‍্যাব-৭ চট্টগ্রামের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি, গত ২৯ জুন মুমিনুল হক তার ছেলে ও ভাতিজাসহ গরু কিনতে মুরাদপুরস্থ ফকিরহাট বাজারে যায়। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার সময় পথিমধ্যে মুরাদপুরের আমিন মোহাম্মদ সী-রোডে নতুন গ্যাস অফিসের সামনে পৌঁছালে চারটি সিএনজি নিয়ে এসে দুস্কৃতিকারীরা তাদের অটোরিক্সার গতিরোধ করে।

দেশী ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে মুমিনুল হকের শরীরে বিভিন্ন স্থানে উপর্যুপরি আঘাত করে। এ সময় মুমিনুল হক গুরুতর আহত হয়ে রাস্তার উপর লুটিয়ে পড়লে তারা মুমিনুলের কাছে থাকা নগদ ১ লক্ষ ৪৬ হাজার টাকা এবং একটি মোবাইল নিয়ে পালিয়ে যায়।

স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

Yakub Group

নিহত মুমিনুল হক পেশায় একজন কৃষিজীবি এবং গরু ব্যবসায়ী ছিলেন। তার ভাই আকবর হোসেন চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড থানার মুরাদপুর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচিত সদস্য।

এ ঘটনায় নিহত ভিকটিম মুমিনুল হকের ছেলে আলী হোসেন সবুজ বাদী হয়ে গত ১ জুলাই চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড থানায় ৮ জনের নাম উল্লেখ করে ও ৯-১০ জনকে অজ্ঞাতনামা করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

গত ৬ সেপ্টেম্বর এই মামলার আসামি মো. সাহাব উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছিল র‍্যাব।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) আসামি আজিজুল হক ওরফে ফারুককে চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুণ্ড থানার বারবকুণ্ড বাজার এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আজিজুল হক সীতাকুণ্ডের হাতিলোটা এলাকার আব্দুল হকের ছেলে।

তার বিরুদ্ধে সীতাকুণ্ড থানায় হত্যা, অস্ত্র, ডাকাতি, মারামার, নারী নির্যাতনসহ পাঁচটি মামলা রয়েছে।

এএস/এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm