সিজল ও মধুবন খাবার বানায় নোংরা পরিবেশে, জরিমানা দেড় লাখ

অনুমোদন ছাড়া বিএসটিআইয়ের লোগো ব্যবহার, নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার বানানোর দায়ে চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদের সিজল ও মধুবনকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে সিজলকে দেড় লাখ টাকা ও মধুবনকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বৃহস্পতিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বায়েজিদ এলাকার জালালাবাদ বিসিক শিল্পনগরীতে অভিযান চালায় বিএসটিআই ও জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জানা গেছে, সিজলের ফ্যাক্টরিতে তৈরি সকল খাবারের প্যাকেটে লেখা ছিল আগ্রাবাদের ঠিকানা। কিন্তু এই ফ্যাক্টরিতে মিষ্টি বা অন্যান্য খাদ্যদ্রব্য তৈরির জন্য কোনো ধরনের লাইসেন্স তাদের নেই। এছাড়া সন্দেশ ও অন্যান্য খাদ্যদ্রব্য মাটিতে পড়ে থাকতে দেখা যায় কারখানায়। একইসঙ্গে মিষ্টিগুলো ছিল প্লাস্টিকের তেলের ড্রামে।

s alam president – mobile

খাবারে সয়াবিন তেলের পরিবর্তে ব্যবহৃত হচ্ছিল পামওয়েল ও ডালডা। ফ্রিজ থেকে দই এবং রসমালাই বের করে দেখা গেছে, বিএসটিআইয়ের অনুমোদন না নিয়েই লোগো লাগানো হয়েছে প্যাকেটের গায়ে। এসব অভিযোগে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয় সিজলের ফ্যাক্টরির ম্যানেজার মো. মিজানুর রহমানকে।

এই বিষয়ে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রতীক দত্ত বলেন, ‘অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মিষ্টি তৈরির ও অনুমোদন না থাকায় সিজলকে জরিমানা করা হয়। এরপর পাশেই অবস্থিত মধুবনের ফ্যাক্টরিতে অভিযান চালানো হয়। তাদের কাগজপত্র সব ঠিকঠাক পাওয়া গেলেও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মিষ্টি তৈরির দায়ে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা কর হয় প্রতিষ্ঠানটিকে।’

আরএ/ডিজে

Yakub Group

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!