সিআরবিতে রাস্তার ধারে বসা ‘নিষেধ’, দোকান থেকে ‘চাঁদা’ নেন আরএনবির সিপাহী

1

প্রতিদিন দুপুর গড়িয়ে বিকেল হতেই চট্টগ্রাম সেন্ট্রাল রেলওয়ে বিল্ডিং (সিআরবি) এলাকায় বাড়তে থাকে লোক সমাগম। কেউ এখানকার প্রকৃতিঘেরা পরিবেশ উপভোগ করতে আসেন, আবার কেউ আসেন নির্মল পরিবেশে আড্ডা দিতে। কয়েক দশক ধরে এভাবেই বিকালের পর থেকে রাত অবধি সিআরবি এলাকা থাকে দর্শনার্থীদের সমাগমে মুখরিত।

কিন্তু সম্প্রতি এই এলাকার সৌন্দর্য উপভোগ করতে আসা দর্শনার্থীদের সিআরবির পশ্চিমে গেটে যাওয়ার উঁচু রাস্তার পাশঘেঁষে বসতে দিচ্ছেন না রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর (আরএনবি) সিপাহী জসিম উদ্দিন। কেউ বসতে গেলে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপকের (জিএম) ‘নিষেধ’ আছে বলে দোহাই দিয়ে দর্শনার্থীদের নিচে গিয়ে বসতে বলেন তিনি।

শুক্রবার (১৮ জুন) সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, সাদা পোশাকে ওই রাস্তার পাশে বসা দর্শনার্থীদের ধমক দিয়ে নিচে যেতে বলেন সিপাহী জসিম উদ্দিন (৩৫)। কেউ কেউ প্রতিবাদ জানালে নাজেহাল হতে হচ্ছে তার হাতে। এ সময় পরিচয় গোপন রেখে সিপাহী হিসেবে সাদা পোশাকে ডিউটি করার কোনো নিয়ম আছে কিনা জানতে চাইলে এই প্রতিবেদকের সঙ্গে তর্কে জড়ান জসিম।

জানা যায়, ওই রাস্তার ওপরে যাওয়া দর্শনার্থীদের বেশ কয়েকদিন ধরে বসতে দিচ্ছেন না জসিম উদ্দিন। এরপর তাদের নিচে গিয়ে বসতে বলা হয়। কিন্তু নিচের অধিকাংশ জায়গা অবৈধ খাবারের দোকানের দখলে। ওইসব দোকানের সামনে চেয়ার বিছিয়ে রাখা হয়েছে। আর চেয়ারগুলোতে বসলেই দোকানগুলো থেকে বাধ্য হয়ে খাবার খেতে হয় দর্শনার্থীদের। মূলত ওইসব দোকানগুলোর ব্যবসা চাঙ্গা রাখতে সিআরবির চিফ ইন্সপেক্টর (সিআই) মো. মাসুদুর রহমানের যোগসাজশ এমনটা করছেন জসিম।

আরও জানা যায়, সিপাহী জসিম উদ্দিন সিআই মো. মাসুদুর রহমানের (সিআই) অধীনে ডিউটি বণ্টনের দায়িত্বে রয়েছেন দীর্ঘদিন। অথচ একজন সিপাহীর এভাবে ডিউটি বণ্টনের কোনো নিয়ম নেই।

Yakub Group

মূলত সিআই মাসুদের ছত্রছায়ায় ক্যাশিয়ারের দায়িত্ব পালন করছেন জসিম। নিচে বসা বিভিন্ন খাবারের দোকান থেকে প্রতিদিন টাকা তুলেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে তার বিরুদ্ধে।

এর আগে মোহনা টিভির চট্টগ্রামের রিপোর্টার সুমন কুমার দে এবং বিভিন্ন দর্শনার্থীদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে আরএনবির কিছু সদস্য। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হলেও এখনও পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

পরিবার সাপ্তাহিক বন্ধের দিন শুক্রবার সিআরবি এলাকায় ঘুরতে এসেছিলেন নুরুল আজিম। তিনি বলেন, ‘গত সপ্তাহেও এখানে এসেছি, আড্ডা দিয়েছি। কিন্তু আজ (শুক্রবার) এসে অবাক হলাম, রেলের এক কর্তার নাম ব্যবহার করে আমাদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেছে এক ব্যক্তি, পরিবারের সামনে বিব্রত করেছে।’

গেটে দায়িত্বরত আরএনবির এক সদস্য বলেন, ‘জসিম প্রতিদিন এভাবেই সাদা পোশাকে ঘুরে বেড়ান।’

এ বিষয়ে সিআরবিতে দায়িত্বরত আরএনবির সিআই মো. মাসুদুর রহমান বলেন, ‘রাস্তায় কোনো গাড়ি পার্কিং করা নিষেধ। তবে দর্শনার্থীদের বসতে কোনো আপত্তি নেই।’

দর্শনার্থীদের সঙ্গে খারাপ আচরণের বিষয়টি নিয়ে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল আরএনবির কমান্ড্যান্ট শফিকুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি খোঁজ নিচ্ছি। সত্যতা পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এ বিষয়ে জানতে পূর্বাঞ্চলের জিএম জাহাঙ্গীর হোসেনের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

1 মন্তব্য
  1. রাকিব হোসেন তালুকদার বলেছেন

    জাহাঙ্গীর শুভ একটা চাঁদাবাজ কেউ যদি ৫০০ টাকা না দেয়, তার বিরুদ্ধে উলটা পালটা রিপোর্ট করবেই, তাকে ভিক্ষা হিসেবে ৫০০ টাকা দান করে দিন।
    তৌফিক ইফতেখার ভাই অয়ন শর্মা দাদা শুভ কত টাকা বেতন পাই এত বিলাসী জীবন যাপন করে কিভাবে?
    জানতে চাই???

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm