সাবেক ভিসি শিরীণের ‘দুর্নীতি’ তদন্তে চবিতে আসছে ইউজিসি প্রতিনিধিদল

শিরীণ আখতার ও সাবেক প্রক্টরকে তলব

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সাবেক উপাচার্য শিরীণ আখতার ও তাঁর প্রশাসনের বিভিন্ন ‘অনিয়ম ও দুর্নীতি’ তদন্তে ক্যাম্পাসে আসছেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) গঠিত তদন্ত কমিটির সদস্যরা।

রোববার (৯ জুন) প্রতিনিধিদল দিনব্যাপি ক্যাম্পাসে অবস্থান করে বিভিন্ন বিষয় তদন্ত করবেন। তদন্ত চলাকালে সাবেক উপাচার্য শিরীণ আখতার, সাবেক প্রক্টর নুরুল আজিম সিকদার, হিসাব নিয়ামক, শিক্ষক নিয়োগ শাখা এবং তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণি শাখার ডেপুটি রেজিস্ট্রারকে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (০৬ জুন) রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কে এম নুর আহমদ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে তাদের উপস্থিত থাকতে বলা হয়।

এদিকে ইউজিসি সূত্রে জানা যায়, প্রতিনিধি দল ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিশারিজ অনুষদ ভবন উদ্বোধনে ৪৪ লাখ ৫৫ হাজার টাকা ব্যয়, বিদায়ী উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার কর্তৃক মন্ত্রিসভায় দায়িত্ব পাওয়া প্রধানমন্ত্রী ও চট্টগ্রামের দুই মন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে পত্রিকায় দেওয়া বিজ্ঞাপনের খরচ, শেষ কর্মদিবসে বিনা বিজ্ঞাপনে অর্ধ শতাধিক কর্মচারী নিয়োগসহ বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতি তদন্ত করবেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের রেজিস্ট্রারের সাথে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন।

জানতে চাইলে রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কে এম নুর আহমদ চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘রোববার ইউজিসির একটা প্রতিনিধি দল ক্যাম্পাসে আসবেন। তাঁরা মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিশারিজ অনুষদ ভবন উদ্বোধনে ৪৪ লাখ ৫৫ হাজার টাকা ব্যয়ের বিষয়ে তদন্ত করবেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাম অপ্রকাশিত রাখার শর্তে প্রতিনিধি দলের এক সদস্য চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, আগামী রোববার আমরা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে যাব। এসময় ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিশারিজ অনুষদ ভবন উদ্বোধনে ৪৪ লাখ ৫৫ হাজার টাকা ব্যয়, বিদায়ী উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার কর্তৃক মন্ত্রিসভায় দায়িত্ব পাওয়া প্রধানমন্ত্রী ও চট্টগ্রামের দুই মন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে পত্রিকায় দেওয়া বিজ্ঞাপনের খরচ, শেষ কর্মদিবসে বিনা বিজ্ঞাপনে অর্ধ শতাধিক কর্মচারী নিয়োগ, বাংলা ও আইন বিভাগে শিক্ষক নিয়োগে অনিয়মসহ বেশ কয়েকটি বিষয়ে তদন্ত করব।

প্রসঙ্গত, ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিশারিজ অনুষদ ভবন উদ্বোধনে ৪৪ লাখ ৫৫ হাজার টাকা ব্যয় ও বিদায়ী উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার কর্তৃক মন্ত্রিসভায় দায়িত্ব পাওয়া প্রধানমন্ত্রী ও চট্টগ্রামের দুই মন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেওয়ার খবর গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে এই দুই বিষয়ে বিস্তারিত ব্যাখ্যা চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়কে চিঠি দিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন।

পরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দেওয়া ব্যাখ্যা সন্তোষজনক না হওয়ায় বিভিন্ন প্রশাসনিক ও আর্থিক অনিয়ম তদন্তে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন।

তিন সদস্যের তদন্ত কমিটিতে ইউজিসি সদস্য বিশ্বজিৎ চন্দকে আহ্বায়ক ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা বিভাগের উপ পরিচালক মো. গোলাম দস্তগীরকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। এছাড়া কমিটিতে ইউজিসির অর্থ ও হিসাব বিভাগের পরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) রেজাউল করিম হাওলাদারকে সদস্য করা হয়েছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!