শফীপুত্রসহ চট্টগ্রামের ৮/ সরকারি খরচে হজে যাচ্ছেন ৫৫ ওলামা

0

সরকারি খরচে ৫৫ ওলামা মাশায়েখকে এ বছরই প্রথম হজে পাঠানো হচ্ছে। হজযাত্রীদের ধর্মীয় ও বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ দিতে তাদের সৌদি আরবে পাঠাচ্ছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে চট্টগ্রামের আছেন আটজন।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, আগামী ৪ ও ৫ আগস্ট ফ্লাইট পাওয়া সাপেক্ষে ওলামা মাশায়েখদের দলটি সৌদি আরব যাবেন। ২৩ আগস্ট তারা দেশে ফিরে আসবেন। এটি রাষ্ট্রীয় খরচে হজ সফর হিসেবে গণ্য হবে। তাদের ভ্রমণ ব্যয় এ বছর ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ‘বাংলাদেশের বাহিরে হজ বাবদ ব্যয়’ খাতে বরাদ্দ রাখা অর্থ থেকে বহন করা হবে।

৫৫ সদস্যবিশিষ্ট ওলামা মাশায়েখ দলে চট্টগ্রামের আছেন আটজন। তারা হলেন হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা আহমদ শফীর ছেলে মাওলানা আনাস মাদানী, পটিয়া মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আবদুল হালিম বোখারি, পটিয়া জিরি মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা শাহ মোহাম্মদ তৈয়ব, ফটিকছড়ির নানুপুরের জামিয়া ওবায়দিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা সালাউদ্দিন নানুপুরী, পটিয়া মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা রেজাউল করিম, পটিয়া জিরি মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা শোয়াইব, জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা সৈয়দ আবু তালেব মোহাম্মদ আলাউদ্দিন এবং জামিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা ওয়াসিউর রহমান। বয়োবৃদ্ধ হওয়ায় পটিয়া জিরি মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা শাহ মোহাম্মদ তৈয়বের সঙ্গে তার ছেলে মাওলানা শোয়াইবও সরকারি খরচে হজ করবেন।

তালিকায় রয়েছেন শোলাকিয়া ঈদগাহের ইমাম ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ ও তার ছেলে মাওলানা সদরুদ্দীন মাকনুন, প্রয়াত মুফতি আমিনীর জামাতা মুফতি সাইফুল ইসলাম ও যাত্রাবাড়ী মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মাহমুদুল হাসানের মেয়ের জামাই মাওলানা নেয়ামতুল্লাহ আল ফরিদীর নামও। এছাড়া গোপালগঞ্জ জেলা থেকে ১১ জন স্থান পেয়েছেন তালিকায়।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন