সবার আগে সুপার ফোরে অপ্রতিরোধ্য চট্টগ্রাম আবাহনী

চট্টগ্রাম প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ

0

এক ম্যাচ বাকি থাকতেই চট্টগ্রাম প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগের সুপার ফোরে নাম লেখাল অপ্রতিরোধ্য চট্টগ্রাম আবাহনী।

শুক্রবার (৪ মার্চ) চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থা (সিজেকেএস) আয়োজিত প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগে চট্টগ্রাম আবাহনী ১১২ রানের বড় ব্যবধানে হারায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র লালকে।

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত লিগের ১৯তম ম্যাচে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৩৪ রান করার বিচ্ছিন্ন হন সাইদুল ইসলাম সাঞ্জু। এর ১০ রান পর রানের খাতা খোলার আগেই বিদায় নেন ওয়ান ডাউনে প্রমোশন পাওয়া সাইদুল ইসলাম ইমরান। পরের বলেই উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন শামসুদ্দিন বাপ্পা। দলীয় ৬৪ রানের মাথায় ফিরে যান অপর উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান আব্দুল মোমেন মিনহাজও। আউট হওয়ার আগে তিনি করেন ৩৩ রান। ৪৬ বলের সাজানো ইনিংসটিতে ছিল এক হালি চার ও একটি ছয়ের মার।

এরপর ছয়ে ব্যাট করতে নামা শোয়েবও ফিরে যান খুব দ্রæত। তাতে করে দলীয় ৭৯ রানেই চট্টগ্রাম আবাহনী হারিয়ে ফেলে ৫ উইকেট। সেখান থেকে পাঁচে নামা মহিউদ্দিনকে নিয়ে দলীয় ইনিংস মেরামতে মনোযোগ দেন অধিনায়ক সাজ্জাদুল হক রিপন। এ দুজন দলকে ১১৯ রানে নিয়ে যাওয়ার পর ৭৪ বলে পাঁচ চারের সাহায্যে ৪২ রান করা মহিউদ্দিন উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন। এরপর জাতীয় তারকা রনি তালুকদার এসে রিপনের সাথে জুটি গড়েন। এ জুটি দ্রæততার সাথে রান তুলে আবাহনীর স্কোর নিরাপদ লক্ষ্যে নিয়ে যাওয়ার কাজ করেন। দলীয় ১৯৫ রানের মাথায় ম্যাচ সর্বোচ্চ ৬০ রান করে আউট হয়ে যান দলীয় অধিনায়ক রিপন। তার ৭৫ বলের ইনিংসটি সাজানো ছিল পাঁচ ৪ ও এক ছয়ে।

রিপনের বিদায়ের ২ ওভার পর বিদায় নেন রনি তালুকদারও। তবে তিনি আউট হওয়ার আগে ৪১ বলে ২ চার ও ৩ ছয়ে দলীয় রান নিয়ে যান ২১৯-এ। শেষ পর্যন্ত ইনিংসের শেষ বলে অলআউট হওয়ার আগে চট্টগ্রাম আবাহনী গড়ে ২৩১ রানের ফাইটিং স্কোর। মুক্তিযোদ্ধার হয়ে পেসার আব্দুল মহিদ শিপন নেন ৫ উইকেট।

জবাব দিতে নেমে ১৩ রানে প্রথম উইকেট হারানো মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র লাল নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে। তাদের হয়ে ইশতিয়াক বিন ইদ্রিস (২৫ রান), তাসামুল হক (২৭ রান), তাহজিবুল ইসলাম (১৯ রান) এবং শাজেদ রিফাত (১৮ রান) দু অঙ্কের কোটা পার হতে পারেন। ফলে ৩৮ ওভারেই তারা অলআউট হয়ে যায় ১১৯ রানে।

চট্টগ্রাম আবাহনীর হয়ে তৌহিদুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম মুন্না ও মোহাম্মদ শোয়েব ২টি করে উইকেট লাভ করেন।

সিটি করপোরেশনকে হারিয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর

একই দিন চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত লিগের অন্য ম্যাচে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন একাদশকে ৪ উইকেটে হারায় চট্টগ্রাম বন্দর ক্রীড়া সমিতি।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন একাদশ নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৮৫ রান সংগ্রহ করে। তাদের হয়ে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান আশরাফুল রবিন ম্যাচ সর্বোচ্চ ৯৮ রান করেন। এছাড়া শাহাদাত হোসাইন করেন ৩৮ রান। বন্দরের পক্ষে মনির ৩টি ও শাওন ২টি উইকেট লাভ করেন।

জবাবে বন্দর ৪২.১ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছায়। তাদের হয়ে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান নাজিম উদ্দিন সাব্বির করেন ৫৫ রান। এছাড়া তারেক ২৮ রান, মার্শাল আইয়ুব ২৬ রান, শাওন ২৫ রান, আবির ২৩ রান করেন।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm