s alam cement
আক্রান্ত
১০২১১০
সুস্থ
৮৬৮৫৬
মৃত্যু
১৩১৩

সন্ধ্যায় ৪৬ যাত্রী নিয়ে দুবাই গেল এমিরেটস এয়ারলাইন্স

0

অবশেষে দুবাইর উদ্দেশে যাত্রা করলেন ৪৬ বাংলাদেশি যাত্রী। বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে করে দুবাই পাড়ি দেন ওই ৪৬ যাত্রী।

দীর্ঘ আন্দোলনের পর ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বসেছে র‌্যাপিড পিসিআর ল্যাব। আর এ ল্যাব থেকে পরীক্ষামূলকভাবে করোনা নেগেটিভ সনদ নিয়েই তারা যাত্রা করেন।

এ বিষয়ে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের সহকারী ম্যানেজার মোহাম্মদ রেজোয়ান বুধবার রাত ৯টায় চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘৪৬ জন যাত্রী নিয়ে এমিরেটস এয়ারলাইন্স এখন আকাশে উড়ছে। রাত সাড়ে ১২টায় দু্বাইতে পৌঁছবে ওই যাত্রীরা। পরীক্ষামূলকভাবে র‌্যাপিড পিসিআর টেস্ট করে এ যাত্রীদের দুবাই পাঠানো হলো। দুবাই কর্তৃপক্ষ তাদেরকে কিভাবে রিসিভ করে সেটার উপর নির্ভর করবে পরবর্তী কাজ।’

প্রবাসী সিরাজুল হক জানান, ‘বুধবার ৫০ জন যাওয়ার কথা ছিল। এর মধ্যে ৪৬ জন গেল। তাদের ৬ ঘণ্টার মধ্যেই পিসিআর টেস্ট করে উক্ত সনদ নিয়ে দুবাই যাত্রা করানো হয়েছে। শাহজালাল বিমানবন্দরেই পিসিআর টেস্ট করানো হয়েছে। এ ল্যাবে পরীক্ষাটাও হলো পরীক্ষামূলক।’

চট্টগ্রামের আটকেপড়া আন্দোলনকারী প্রবাসী মহিউদ্দিন বেলাল রণি বলেন, ‘পরীক্ষামূলকভাবে ৪৬ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকা ছেড়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইগামী এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট। বিমানবন্দরে তাদের করোনা পরীক্ষা করে নেগেটিভ রিপোর্ট পাওয়ার পর বোর্ডিং করা হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ফ্লাইটটি ছেড়ে যায়।’

তিনি বলেন, ‘বিমানবন্দর এলাকায় একটি মোবাইল ল্যাবে তাদের করোনা পরীক্ষা হয়েছে। নেগেটিভ রিপোর্ট আসার পর তাদের বোর্ডিং করা হয়েছে। পরীক্ষামূলক পরিস্থিতি সন্তোষজনক হলে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে আরব আমিরাত। এরপর নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালিত হবে। তখন আটকে পড়া প্রবাসীদের দুঃখ দুর্দশা লাঘব হবে।’

গত ৩০ আগস্ট (সোমবার) দুপুর ১২টা থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাইরে থাকা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রবাসীরা ফেরার অনুমতি পান। কিন্তু তাদের ফিরে যেতে হলে মানতে হবে জটিল শর্ত। আর এই শর্তের কারণে দেশে আটকে থাকা প্রবাসীদের আমিরাতে ফিরে যাওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়ে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, বিমানবন্দরে ফ্লাইট ছাড়ার ৬ ঘণ্টা আগে র‌্যাপিড পিসিআর পদ্ধতিতে করোনা পরীক্ষা করে নেগেটিভ রিপোর্টপ্রাপ্ত যাত্রীরা আরব আমিরাতে প্রবেশ করতে পারবেন। তবে তারা আরব আমিরাতে প্রবেশ করার পর আবার ২য় দফা করোনা টেস্ট করা হবে।

এদিকে দেশের আন্তজার্তিক বিমানবন্দরগুলোতে র‌্যাপিড পিসিআর ল্যাব স্থাপনের দাবি জানিয়ে আসছিলেন আরব আমিরাত প্রবাসীরা। এ দাবি জানিয়ে রাজধানী ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটে সংবাদ সম্মেলন, মানববন্ধনও করেছেন তারা। এছাড়া, প্রবাসীরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ে স্মারকলিপিও দিয়েছেন।

এএস/কেএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm