সন্দ্বীপে খাল-জমির মাটি বেচে জরিমানা গুনলেন মেম্বারের ভাই

0

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলায় সরকারি খাল ও ব্যক্তি মালিকানাধীন জমির মাটি কেটে বিক্রি করায় ইউনিয়ন মেম্বারের ভাইকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার (১৬ এপ্রিল) বিকেল ৩টায় মগধরা ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মঈন উদ্দিন এই অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযানে স্থানীয় মেম্বার নাছিরের ছোট ভাই মো. হৃদয়কে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

স্থানীয় সূত্র জানা যায় দীর্ঘদিন ধরে নাছির মেম্বার এবং আলমগীর, হৃদয়, মানুন মিলে সরকারি খাল এবং ব্যক্তি মালিকানাধীন জমি থেকে মাটি কেটে বিক্রি করছিল। এতে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে মাটি কাটার কাজে বাধা দেয়।

ভুক্তভোগী খাদেম অভিযোগ করে বলেন, ‘আমার মালিকানাধীন জমির মাটি কাটার সময় আমি বাধা দিলে আমাকে বলে, সরকারি অনুমতি আছে। তখন আমি চেয়ারম্যানকে বিষয়টা জানাই। কিন্তু কোনো সুফল আমি পাইনি। অভিযোগ দেওয়ায়, তারা ক্ষুব্ধ হয়ে আমার জমি ২০ ফুটের বেশি গভীর করে মাটি কেটে ফেলে। এরপর আমি গিয়ে ভূমি অফিসে অভিযোগ করি।

Yakub Group

এই বিষয়ে জানতে চাইলে মেম্বার নাছির বলেন, ‘খাল পরিস্কার ও পানি নিস্কাশনের জন্য চেয়ারম্যানের সঙ্গে আলোচনা করে মাটি কাটা হয়েছে। এখানে কোনো ব্যক্তি মালিকানা জমি নেই। ১০-১২ বছর খাস জমি দখল করে রাখলে, এটা উচ্ছেদ করলে জনগণতো ক্ষুব্ধ হবে।

মাটি কাটার জন্য সরকারি কোনো নির্দেশনা আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাছে একমাস আগে আবেদন করা হয়েছিল এবং মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে। কিন্তু লিখিত কোনো আদেশ নেই।’

উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মঈন উদ্দীন বলেন, ‘অবৈধভাবে সরকারি খালের মাটি ও জোরপূর্বক ভয়ভীতি দেখিয়ে ব্যক্তি মালিকানাধীন জমির মাটি কাটার অপরাধে হৃদয় নামের এক ব্যক্তিকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

অভিযানের সময় ইউপি চেয়ারম্যান, সন্দ্বীপ থানা পুলিশ ও স্থানীয় জনতা উপস্থিত ছিলেন।

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm