বর্ষীয়ান আওয়ামী লীগ নেতাকে রহমত উল্ল্যা চৌধুরী ফাউন্ডেশনের শুভেচ্ছা

0

সাবেক গণপরিষদ সদস্য বর্ষীয়ান আওয়ামী লীগ নেতা জননেতা আবু সালেহ বলেছেন, জীবন সায়াহ্নে এসে এতটুকুই প্রাপ্তি, ‘আমি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্নেহভাজন ও আস্থাভাজন ছিলাম। তিনিই শিখিয়ে গেছেন, লোভ-লালসাহীন জীবন যাপনই শ্রেষ্ঠ জীবন। কোনদিন লোভ-অন্যায়কে প্রশ্রয় দিইনি, মানুষের কল্যাণে কাজ করার চেষ্টা করেছি। কারো উপকার করতে না পারলে অপকার করিনি এটা বুকে হাত দিয়ে বলতে পারি।’

তিনি বলেন, একদা রাজনীতি মানেই ছিলো মানবসেবা আর ইদানীং কতিপয় রাজনীতিক রাজনীতির সংজ্ঞাই বদলে দিয়েছেন। এটা ভালো লক্ষণ নয়। জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি পূর্ণ আস্থাবান আবু সালেহ বলেন, এ কথা আমি বিশ্বাস করি, তিনি যোগ্যদের সবসময়ই মূল্যায়ন করেছেন এবং করবেন।

গতকাল ৮ মে, বুধবার চট্টগ্রামে তাঁর মোমিন রোডস্থ বাসায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর প্রখ্যাত শ্রমিক নেতা মরহুম রহমত উল্ল্যা চৌধুরী ফাউন্ডেশনের নেতৃবৃন্দ জনাব আবু সালেহকে মাহে রমজানের শুভেচ্ছা জানাতে গেলে তিনি এসব কথা বলেন। ফাউন্ডেশন নেতৃবৃন্দ তাঁর দীর্ঘায়ু কামনা করেন এবং রমজানে স্বাচ্ছন্দ্যে চলার অনুষঙ্গ প্রদান করেন।

এ সময় ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা লেখক-সাংবাদিক শওকত বাঙালি, মিসেস আবু সালেহ, ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি চট্টগ্রাম জেলা মহিলা বিষয়ক সম্পাদক, মহানগর যুবলীগ নেত্রী ও নারীনেত্রী রুবা আহসান, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি চট্টগ্রাম জেলা যুগ্ম সহ-সাধারণ সম্পাদক হাবিব উল্ল্যা চৌধুরী ভাস্কর, কবি-সংগঠক আসিফ ইকবাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Loading...
আরও পড়ুন