শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী পালন করলো চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

0

চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠপুত্র শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী পালন করা হয়েছে।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার কার্যালয়ে প্রাঙ্গনে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এসময় উপস্থিত অতিথি ও কর্মকর্তাগণ শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পন করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি মো. আশরাফ উদ্দিন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ডিআইজি মো. আনোয়ার হোসেন, সিএমপি কমিশনার কৃষ্ণ পদ রায় ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রেস ক্লাব সভাপতি ও বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সহসভাপতি আলী আব্বাস।

Yakub Group

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক, বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার কোষাধ্যক্ষ নোমান আল মাহমুদ, কার্যনির্বাহী সদস্য মো. আসলাম হোসেন খান, আরিফুর রহমান, আবু সামা বিপ্লব প্রমুখ।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম-সম্পাদক নজরুল ইসলাম লেদু।

অনুষ্ঠানস্থলে স্থাপিত শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে পস্পস্তবক অর্পন করেন বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়, ডিআইজি, পুলিশ কমিশনার, চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, বিভাগীয় তথ্য অফিস, পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিভাগীয় কমিশনার মো. আশরাফ উদ্দিন বলেন, শহীদ শেখ কামালের কর্মময় জীবন থেকে বর্তমান যুব সমাজকে শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। শহীদ শেখ কামাল তাঁর অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত জীবনে ক্রীড়া, রাজনীতি, সংস্কৃতিসহ সকল ক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রেখেছেন।

অনুষ্ঠানের সভাপতি চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি আলী আব্বাস তাঁর বক্তব্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, সাংবাদিক, ক্রীড়াসংগঠক, ক্রীড়াবিদসহ সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি বলেন, তরুন সমাজের মাঝে শেখ কামালকে স্মরনীয় করে রাখতে এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে তাঁর একটি মুর‍্যাল স্থাপন অত্যন্ত জরুরী।

অচিরেই একটি মুর‍্যাল স্থাপনের প্রতিশ্রুতি দেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন।

আলোচনা সভা শেষে দোয়া করা হয়। যা পরিচালনা করেন হাফেজ জয়নাল আবেদীন।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm