শর্টসার্কিটের আগুনে ১৩ বসতঘর পুড়ল চকরিয়ায়

কক্সবাজারের চকরিয়ায় বিদ্যুতের শর্টসার্কিটের আগুনে ১৩ বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এই সময় আগুনে বসতঘরে থাকা নগদ টাকা, স্বর্ণলংকার, ধান, চাল, বাড়ির আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন সামগ্রী পুড়ে যায়।

বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) দুপুরে উপজেলার কোণাখালী ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ছইনাম্বার ঘোনা এলাকায় এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা জানায়, বিদ্যুতের শর্টসার্কিট থেকে আগুন মুহূর্তেই চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। পরে পেকুয়া উপজেলার ফায়ার সার্ভিস ও চকরিয়া ফায়ার সার্ভিসসহ স্থানীয় লোকজন কয়েক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষণে ১৩টি বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

কোণাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদার জানান, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো বসতঘর নির্মাণ করেছিল। এসব পরিবারগুলো খুবই হতদরিদ্র। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ১৩ পরিবারের আনুমানিক এক কোটি টাকার মতো ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের খবর শুনে কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের সংসদ সদস্য জাফর আলম ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেপি দেওয়ান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এই সময় জাফর আলম এমপি ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিটি পরিবারের মাঝে প্রাথমিকভাবে নগদ ১০ টাকা অনুদান হিসেবে প্রদান করেন এবং উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে চাল-ডাল এবং কম্বলসহ নানা প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

জাফর আলম এমপি বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমার পক্ষ থেকে প্রতি পরিবারকে ১০ টাকা করে দেওয়া হয়েছে। তাদের পুনর্বাসন করার জন্য উপজেলা প্রশাসন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।’

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!