লরির নিচে প্রাণ গেলো কমার্স কলেজ ছাত্রীর—ফিরছিলেন স্বামীর সাথে

0

স্বামীর সাথে মোটরসাইকেলে করে বাসায় ফিরছিলেন সরকারি কমার্স কলেজের শিক্ষার্থী সাদিয়া আফরোজ অনিতা (২৩)। বেলা সাড়ে এগারটার মধ্যেই বাসায় ফেরার তাগাদা ছিল তার। কারণ তাকে বাসায় রেখে তার স্বামী কর্মস্থলে যাবেন। কিন্তু সেই অনিতা বিকেল পাঁচটায় বাড়ি ফিরলেন লাশ হয়ে।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) সকাল সাড়ে দশটায় চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানার ডিটি রোডে এ দুর্ঘটনা ঘটে। অনিতার স্বামী আরমান শাকিলের মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয় একটি লরি।

এ সময় ডিটি রোডে থাকা গর্তে পড়ে যায় স্বামী-স্ত্রী দুজনেই। আর লরিটি অনিতার মাথার ওপর দিয়ে চলে যায় দ্রুত।

অনিতার বাবার বাসা কর্নেল হাট শাহেরপাড়া এলাকায়। অনিতা সরকারি কমার্স কলেজের এমবিএ শিক্ষার্থী ছিলেন। দুই মাস আগে তার বিয়ে হয়।

ডবলমুরিং থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আহলাদ ইবনে জামিল চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে জানান, অনিতা তার স্বামীর মোটরসাইকেলে করে প্রাইভেট স্যারের বাসা থেকে ফিরছিলেন। কর্নেল হাট ডিটি রোডের খানা-খন্দে ভরা রাস্তায় হঠাৎ পেছন থেকে একটা মালবাহী লরি ধাক্কা দিলে অনিতা লরির নিচে চাপা পড়েন।

তার স্বামী শাকিল মোটর সাইকেল থেকে ছিটকে রাস্তায় পড়ে যান। ঘটনাস্থলেই মারা যান অনিতা। পরে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

বিকেল সাড়ে তিনটায় অনিতার লাশ পরিবারকে বুঝিয়ে দেয়া হলেও লাশ বাসায় পৌঁছে পাঁচটায়। ঘাতক লরিটিকে আটক করা হয়েছে বলে জানান এসআই জামিল।

আইএমই/কেএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm