রেডিসনে হ্যালোইন উৎসব বৃহস্পতিবার

0

পশ্চিমা বিশ্বের অনুকরণে ৩১ অক্টোবর চট্টগ্রামেরও নানা আয়োজনে হ্যালোয়িন উৎসবের আয়োজন চলছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও হোটেলে।এদিকে হ্যালোইন উৎসব উপলক্ষে চট্টগ্রাম নগরীর পাঁচ তারকা হোটেল রেডিসন ব্লু চট্টগ্রাম বে ভিউ এরই মাঝে যেন ডেকে পাঠিয়েছে শত শত ভূত ও প্রেতাত্মাদের।

প্রতিবছরের মতো এই এবারও ভূতুড়ে গল্পপ্রেমীদের হ্যালোইনের আনন্দ ও শিহরণে মাতাতে প্রস্তুতি নিয়েছে রেডিসন ব্লু চট্টগ্রাম বে ভিউ। জমকালো গুহার মাঝে হাজার বাদুরের উড়োউড়ি, সাদা ব্যন্ডেজে মোড়ানো মমির মত শরীর। ছোপছোপ রক্তের দাগ। মুখে দগদগে সেলাই। রক্তে ভেসে যাচ্ছে মুখ এবং বাকি শরীর।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রেডিসনের গণসংযোগ কর্মকর্তা রাহফাত সালমান চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে জানান, ‘হাজারো ভূতের মেলা ছাড়াও বাচ্চাদের জন্যে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, মুভিশো, ম্যাজিকশো, ফেইস পেইন্টিং এবং আকর্ষণীয় সব পুরস্কার জেতার সুবর্ণ সুযোগ।’

হ্যালোইন উৎসবের উৎপত্তি— উইকিপিডিয়া থেকে জানা যায়, আইরিশ, যুক্তরাজ্য, ওয়েলশ সম্প্রদায়ের লোকেরা বিশ্বাস করতেন প্রত্যেক নতুন বছরের আগের রাতে (৩১ অক্টোবর) সাহেইন, মৃত্যুর দেবতা, আঁধারের রাজপুত্র, সব মৃত আত্মাকে ডাক দেয়। এই দিন মহাশূন্য এবং সময়ের সমস্ত আইন-কানুন স্থগিত করা হয় এবং জীবিতদের বিশ্বে যোগদান করতে মৃত আত্মাদের অনুমোদন করে।

তারা আরও বিশ্বাস করতো, মৃত্যুর কারণে তারা অমর যুবক হয়ে একটি জমিতে বসবাস করবে এবং আনন্দে ডাকা হতো ‘Tir nun Oge’। মাঝেমাঝে বিশ্বাস করতো যে স্কটল্যান্ড এবং আয়ারল্যান্ড অঞ্চলের ছোট পাহাড়ে কখনো কখনো মৃতরা পরীদের সাথে থাকে।

পশ্চিমা বিশ্বেও একটি লোককাহিনী প্রচলিত আছে— সব মৃত ব্যক্তিরা ৩১ অক্টোবর রাতে জীবিতদের বিশ্বে আসে আগামী বছরের নতুন দেহ নেওয়ার জন্য। এজন্য গ্রামবাসীরা এই খারাপ আত্মাদের থেকে বাঁচার জন্য ব্যবস্থা নেয়। তারা পবিত্র বেদির আগুন বন্ধ করতো এবং নতুন আগুন জ্বালাতো (যেটি নতুন বছরের আগমন প্রতীক হিসাবে ছিল) পরবর্তী প্রভাতে।

এইদিন আইরিশ, যুক্তরাজ্যবাসী কেল্টদিগের পুরোহিতরা মিলিত হতো একটি অন্ধকার ওক (পবিত্র গাছ হিসেবে বিবেচনা করা হতো) বনের ছোট পাহাড়ে। সেখানে তারা নতুন আগুন জ্বালাতো এবং বীজ ও প্রাণী উৎসর্গ করতো। আগুনের চারিদিকে নাচতো এবং গাইতো সকাল পর্যন্ত। সকালে পুরোহিতরা প্রতি পরিবার থেকে জ্বলানো অগ্নির কয়লা পরিধান করতো বলেও কথিত আছে।

এফএম/এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন