রায় শুনে আদালতে জ্ঞান হারালো ডাকাত, তবুও যেতে হলো শ্রীঘরে

২৫ বছর আগের একটি ডাকাতি মামলায় চট্টগ্রামের আদালতে নিয়মিত হাজিরা দিয়ে আসছিলেন আসামি আবুল কাশেম। প্রতিবারের মতো সোমবার (২০ নভেম্বর) হাজিরা দিতে আসেন চট্টগ্রামের জেলা ও দায়রা জজ আদালতে। কিন্তু আবুল কাশেমকে তখন শোনানো হয় সেই মামলার সাজা।

আর সাজা শুনে আদালত কক্ষেই মাথা ঘুরে পড়ে যান আবুল কাশেম। পরে প্রাথমিক চিকিৎসায় সুস্থ করে কারাগারে পাঠানো হয় তাকে।

তৃতীয় অতিরিক্ত চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ এইচএম শফিকুল ইসলামের আদালতে ঘটে এই ঘটনা। রায়ে আসামি আবুল কাশেমকে তিন বছরের কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকার অর্থদণ্ড দেওয়া হয়।

মামলার অন্য আসামিদের প্রত্যককে সাত বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

আদালতসূত্রে জানা গেছে, ২৫ বছর আগে ১৯৯৮ সালে একটি ডাকাতির ঘটনায় পটিয়া থানার একটি মামলায় আসামি হন আবুল কাশেম। ডাকাত দলের সদস্য হিসেবে প্রমাণিত হওয়ায় রায় ঘোষণা হয় সোমবার।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম জেলার কোর্ট পরিদর্শক জাকির হোসাইন মাহমুদ জানান, আদালতে একজন আসামি রায় শুনে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। পরে সুস্থ হলে সাজা পরোয়ানামূলে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিএস/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!