যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা মিরসরাইয়ে

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ইউনিয়ন যুবলীগ কর্মী শহীদুল ইসলাম আকাশ (৩২) কুপিয়ে হত্যা করেছে। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) উপজেলার হিঙ্গুলী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের চিনকির হাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

শহিদুল ইসলাম আকাশ হিঙ্গুলী ইউনিয়নের পুর্ব হিঙ্গুলী গ্রামের নুর ইসলামের পুত্র।

জানা গেছ, সোমবার সন্ধা ৬টায় চিনকির হাট বাজারে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নাজমা টিম্বারে বসা ছিল শহিদুল ইসলাম আকাশ। আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হিঙ্গুলী ইউনিয়নের মামুনের সাথে দীর্ঘদিন ধরে আকাশের সাথে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। তারই জের ধরে সোমবার সন্ধ্যায় মামুনের নেতৃত্বে ১০-১২ জনের একটি গ্রুপ চিনকীরহাট এলাকায় আকাশকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। পরে আশপাশের লোকজন উদ্ধার করে প্রথমে মস্তাননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসার পর অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে দ্রুত উন্নত চমেক হাসপাতালে পাঠানোর পরামর্শ দেন। চমেক হাসপাতালে নেওয়ার পর রাত ৯টায় শহিদুল ইসলাম আকাশ অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরনে মারা যায়।

স্থানীয় যুবলীগ নেতা আরেফিন নাহিদ বলেন, সোমবার সন্ধ্যায় ইসলামপুর এলাকার মন্ত্রাসী মামুন ও তার ভাই আকাশকে হত্যার জন্য গলা কেটে দেয়। মুমূর্ষ অবস্থায় আকাশ চমেকে মারা যায়। তার ছোট একটি মেয়ে রয়েছে। রাজনীতিতে খুব সক্রিয় ছিলো। তার মৃত্যুতে দলের বড় ক্ষতি হয়ে গেলে। অবিলম্বে হত্যাকারীদের দ্রত গ্রেফতারের দাবি জানাচ্ছি।

হিঙ্গুলী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কামরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত বলেন, পুর্ব শত্রুতার জের ধরে সন্ধা ৬টায় রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ আধিপত্য নিয়ে হামলা করে শহিদুল ইসলাম আকাশের ওপর। ২০০০ সাল এবং ২০১৮ সালেও তার ওপর হামলা হয়েছিলো। এবার তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে।

Yakub Group

হিঙ্গুলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সোনা মিয়া জানান, আমি খুনের ঘটনা সম্পর্কে সঠিক এখনও জানি না। আমার এলাকায় সন্ত্রাসী নেই। বারইয়ারহাট কেন্দ্রিক কিছু ছেলে নানা অপকর্মের সাথে জড়িত। কে জড়িত পুলিশ তদন্ত করে বের করবে।

উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মাইনুর ইসলাম রানা বলেন, শহিদুল ইসলাম আকাশ হিঙ্গুলী ইউনিয়ন যুবলীগের কর্মী ছিলেন। তবে কে বা কারা তাকে খুন করেছে তা এখনো জানতে পারি নাই।

জোরারগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসার এএসআই আব্দুল বাতেন হত্যাকান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ওসি স্যার সহ পুলিশের দুটি টিম ঘটনাস্থলে কাজ করছে। জড়িতদের শনাক্ত করে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। লাশের ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। তবে এ ঘটনায় এখনো থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm