যুক্তরাষ্ট্রে প্রবীণতম বাংলাদেশি সন্দ্বীপের হাদি মারা গেলেন

0

যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বাংলাদেশিদের মধ্যে ‘প্রবীণতম’ হিসেবে পরিচিত আব্দুল হাদি (১০৩) মারা গেছেন। ৭৫ বছর ধরে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে প্রবাস জীবনযাপন করে আসছিলেন। প্রবাসীদের কাছে তিনি সম্মানিত ব্যক্তিত্ব হিসেবে বরণীয় ছিলেন। আব্দুল হাদির বাড়ি চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের গাছুয়া ইউনিয়নে।

শনিবার (২১ মার্চ) রাতে নিউ ইয়র্কের ব্রুকলিনে তিনি মারা যান বলে জানান ‘সন্দ্বীপ সোসাইটি’ পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান মাহফুজুল মাওলা নান্নু। গত কিছুদিন ধরে তিনি নিউমোনিয়ায় ভুগছিলেন। শুক্রবার (২০ মার্চ) মায়মনিডেস হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে ছাড়পত্র দিলে অসুস্থ অবস্থাতেই তাকে বাসায় আনা হয়। সেখানেই মারা যান তিনি। এ সময় তার পরিবারের সদস্যরা পাশে ছিলেন। তার স্ত্রী, ৩ ছেলে ও ১ মেয়ে রয়েছে।

‘সন্দ্বীপ অ্যাসোসিয়েশন’র সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবুল বলেন, ‘১৯৪৫ সালে জাহাজে করে যুক্তরাষ্ট্র্রে এসেছিলেন ২৫ বছর বয়সী আব্দুল হাদি। স্বল্পভাষী আব্দুল হাদি ম্যানহাটানে ‘করাচি-পাকিস্তান রেস্টুরেন্ট’-এ খণ্ডকালীন কাজ শুরু করেন। পরবর্তীতে নির্মাণ ব্যবসায়ী হিসেবে তিনি খ্যাতি পান। তার পথ ধরে সন্দ্বীপ তথা চট্টগ্রাম অঞ্চলের শত শত প্রবাসী পরবর্তীতে নির্মাণ ব্যবসায় উদ্বুদ্ধ হন।’

নিউ ইয়র্কে ‘সন্দ্বীপ সোসাইটি’র নিজস্ব কবরস্থানে তার দাফনের প্রস্তুতি চলছে। করোনাভাইরাসের কারণে নিউ ইয়র্কে জরুরি অবস্থা চলমান থাকায় কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে জানাজা ও দাফনের কর্মসূচি জানানো হবে বলে তার পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন