যুক্তরাষ্ট্রে চট্টগ্রামের যুবক গুলিতে খুন

যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি অঙ্গরাজ্যে সন্ত্রাসীর গুলিতে মারা গেছে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের এক যুবক।

নিহত যুবকের নাম রমিম উদ্দিন আহম্মেদ (২২)। তিনি উপজেলার করেরহাট ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ভালুকিয়া এলাকার বাদশাহ মিয়া সওদাগর বাড়ির মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধা সামছুদ্দিন আহমেদের দ্বিতীয় ছেলে।

মঙ্গলবার (১৮ জুলাই) সকালে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। সন্ত্রাসীরা তার সঙ্গে থাকা গাড়ি ও টাকা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্য মাথায় গুলি করেছিল বলে জানা গেছে।

নিহতের বড় ভাই রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ জানান, ২০১৬ সালে আমার খালার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে যায় রমিম উদ্দিন। রমিম স্থানীয় একটি কলেজে কম্পিউটার সাইন্সের ওপর পড়ালেখা করতো। পাশাপাশি মিসৌরি অঙ্গরাজ্যের সেন্ট লুইস শহরের হ্যাম্পটন এভের ১১০০ ব্লকের একটি গ্যাস স্টেশনে কাজ করতো। গত মঙ্গলবার ওইখানকার স্থানীয় একদল সন্ত্রাসীরা তাকে গুলি করে হত্যা করেছে। সন্ত্রাসীরা তার সঙ্গে থাকা গাড়ি ও টাকা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্য মাথায় গুলি করে বলে জানতে পেরেছি।

তিনি আরও জানান, এই ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র পুলিশ বাদি হয়ে একটি মামলা করেছে। লাশ এখনও আমার স্বজনরা বুঝে পায়নি। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ হস্তান্তর করা হলে দেশে আনার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত বাংলাদেশি সাংবাদিক মোহাম্মদ মঞ্জুরুল হক বলেন, ‘স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকালের দিকে মিসৌরি অঙ্গরাজ্যের সেন্ট লুইস শহরের হ্যাম্পটন এভের ১১০০ ব্লকের একটি গ্যাস স্টেশনে কাজ করছিলেন রমিম উদ্দিন। এই সময় বাইরে দাঁড় করানো রমিম উদ্দিনের গাড়ির কাঁচ ভেঙে ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করে একদল সন্ত্রাসী। রমিম তাদের বাধা দিলে এক বন্দুকধারী তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পরে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’

তিনি বলেন, ‘ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে জ্যাটাভিয়ন স্কট নামের ১৯ বছরের এক তরুণকে খুঁজছে পুলিশ।’

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!