মিরসরাইয়ে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত যুবলীগ নেতার পরিবারের পাশে এলিট

চট্টগ্রাম জেলার মিরসরাই উপজেলার দুই নম্বর হিঙ্গুলী ইউনিয়নে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম আকাশের (২৮) শোকসন্তপ্ত পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নিয়াজ মোর্শেদ এলিট।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম আকাশের পরিবারের সাথে দেখা করতে তাদের বাসায় যান তিনি।

এ সময় নিয়াজ মোর্শেদ এলিটকে বলেন, ‘দল ক্ষমতায় আছে দীর্ঘ এক যুগের বেশি। এই সময়ে ও তার আগে বাংলাদেশ যুবলীগ বারবার প্রমাণ দিয়েছে তার শক্তি ও সাহসের কথা। খুব খারাপ লাগে, যখন দেখি আমার যুবলীগের ভাইয়ের রক্তে লাল হয়ে যায় বাংলার মাটি! ভাবতে অবাক লাগে! এটা তো হওয়ার কথা না! কেন এমন হচ্ছে! আমাদের ভাবা দরকার।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার উপজেলা মিরসরাইয়ের হিঙ্গুলী ইউনিয়নের যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম আকাশকে গত ১৯ সেপ্টেম্বর কুপিয়ে খুন করেছে একদল দুর্বৃত্ত। আমি এ ঘটনার ন্যায় বিচার চাই। পাশাপাশি শোকগ্রস্ত পরিবারের পাশে থাকার জন্য আমি সবাইকে আহ্বান জানাই। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শের সৈনিক এবং বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ভাইয়ের মানবিক যুবলীগের একজন কর্মী হয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সকল স্তরের নেতা-কর্মীদের হত্যার সুস্পষ্ট বিচার দাবি করছি।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নিহত যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম আকাশের ভাই, ভগ্নিপতি, সাবেক যুবলীগ নেতা নূরউদ্দিন বাহার, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবলীগ নেতা এবং বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি আছিফ রহমান শাহীন, ইমতিয়াজ অভি, শওকত আজিম রিংকু, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের ভাইস-প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ আল নোমান, উপ মুক্তিযোদ্ধা ও গণযোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক জাহেদুল ইসলাম রানা, উপ কর্মসুচি বিষয়ক সম্পাদক আহসান উদ্দিন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আশরাফ প্রমুখ।

পরে নিয়াজ মোর্শেদ এলিট নিহত যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম আকাশের কবর জিয়ারত এবং ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

Yakub Group

প্রসঙ্গত গত ১৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ২ নম্বর হিঙ্গুলী ইউনিয়নের চিনকিরহাট বাজারে তার ফার্নিচার দোকানে হামলার শিকার হন শহিদুল ইসলাম আকাশ। তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

নিহত শহিদুল ইসলাম আকাশ উপজেলার ২ নম্বর হিঙ্গুলী ইউনিয়নের চিনকিরহাট এলাকার নূর ইসলামের ছেলে।

এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm