আক্রান্ত
১০১৮০
সুস্থ
১২১৬
মৃত্যু
১৯৫

মিরসরাইয়ে দ্বিতীয় করোনা রোগী শনাক্ত

0
high flow nasal cannula – mobile

মিরসরাইয়ে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এ প্রথম রোগী সনাক্ত হওয়ার ১০দিন পর আক্রান্ত দ্বিতীয়জন শনাক্ত হয়েছে। তার বাড়ি উপজেলার ১০ নম্বর মিঠানালা ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের পাত্তারপুকুর এলাকায়। তার বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

তিনি গত ২১ এপ্রিল শ্বাসকষ্ট নিয়ে বিআইটিআইডিতে নমুনা প্রদান শেষে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন।

সোমবার (২৭ এপ্রিল) রাতে ফৌজদারহাটে অবস্থিত বাংলাদেশ ট্রপিক্যাল ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) নমুনার ফলাফল প্রকাশ করলে মিরসরাইয়ে আরও এক ব্যক্তির রিপোর্ট পজিটিভ আসার বিষয়টি চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন শেখ ফজলে রাব্বি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন।

এর আগে গত ১৮ এপ্রিল উপজেলার খৈয়াছড়া ইউনিয়নের নিজতালুক গ্রামে প্রথম রোগী এক নারী শনাক্ত হয়েছেন। তিনি এখনো সিএমএইচে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানা যায়, আক্রান্ত ব্যক্তি মিঠানালা ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের (পাত্তার পুকুর) বাসিন্দা। পেশায় তিনি একজন প্রাইভেট কার চালক। তার বয়স ৩০ বছর, তিনি ওই এলাকার মোল্লা বাড়ির বাসিন্দা।

মিরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন, তার সংস্পর্শে আসারাও সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এ বিষয়ে আমাদের পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণের কাজ শুরু হয়েছে।

মিরসরাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ক কর্মকর্তা ডা. মিজানুর রহমান জানান, মিরসরাইয়ের বিআইটিআইডির করোনা পজিটিভ ডিক্লারেরেশন হওয়ার আগে রোগী নিজেই নমুনা দিয়ে চট্টগ্রাম জেলারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়। সোমবার রাতে তার সংক্রমণ হওয়ার বিষয়টি পরীক্ষাগার থেকে নিশ্চিত হওয়া গেছে। সংক্রমণের কারণ এখনো জানা যায়নি।

জানা গেছে, জ্বর ও গলা ব্যাথা অনুভব করলে গত ২১ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। যার রিপোর্ট গতকাল ৭ দিন পর প্রকাশ হয়েছে।

রোগী মুঠোফোনে প্রতিবেদককে জানান, তিনি বর্তমানে স্বাভাবিক আছেন। গত ১৮ এপ্রিল তার এলাকায় ফুটবল খেলে সন্ধ্যার পর বাড়িতে আসার পর থেকেই অসুস্থবোধ করেছেন।

এদিকে প্রাইভেটকার চালকের করোনা শনাক্ত হওয়ার পর তার সহকারীর বাড়িও লকডাউন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।

এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm