মিরসরাইয়ের প্যানেল মেয়র শাখের ফের গ্রেপ্তার

0

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে চাঞ্চল্যকর শাহাদাত হত্যা মামলায় মিরসরাই পৌরসভার প্যানেল মেয়র শাখের ইসলাম রাজুকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১০ মে) জুডিশিয়াল আদালত-১ ম্যাজিস্ট্রেট জিহান সানজিদার আদালতে হাজিরা দিতে গেলে জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

রাজু মিরসরাই পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও পৌরসভার প্যানেল মেয়র। এর আগে তিনি ২ মাস ২৬ দিন জেল খেটে জামিনে আসেন।

জানা গেছে, কাউন্সিলর রাজু ২০২১ সালের ২৫ জুন আজিম হোসেন শাহাদাত নামে এক যুবককে নিজ শয়ন কক্ষে অমানুষিক নির্যাতন করে হত্যা করে। এই ঘটনায় তখন শাহাদাতের পিতা আবদুল বাতেন বাদি হয়ে মিরসরাই থানায় প্যানেল মেয়র শাখের ইসলাম রাজুকে প্রধান আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। নিহত শাহদাতের গ্রামের লোকজন কমিশনার রাজুকে হত্যাকারী দাবি করে আন্দোলনে নামলে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। পরে তিনি আদালত থেকে জামিনে বের হন।

মিরসরাই থানা পুলিশ তাকে প্রধান আসামি করে হত্যা মামলার চার্জশিট দাখিল করে আদালত বরাবরে।

মিরসরাই থানার তৎকালীন তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক ওয়ালি উল্লাহ বলেন, ‘এজাহারের বর্ণনা ও তদন্ত রিপোর্টের তথ্য অনুযায়ী শাখের ইসলাম রাজুকে প্রধান আসামি করা হয়েছে।’

এদিকে মঙ্গলবার (১০ মে) মিরসরাই পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের মো. আক্কাসের স্ত্রী মোছাম্মদ রাশেদা আক্তার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে কাউন্সিলর রাজুর বিরুদ্ধে সম্মেলন করেন।

রাশেদা লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করেন শাখের ইসলাম রাজুর সন্ত্রাসীবাহিনী তাদের পুরো পরিবারকে এলাকা ছাড়া করতে একের পর এক হামলা চালায়। যদি এলাকা না ছাড়ে পুরো পরিবারকে রাতের আঁধারে আগুন দিয়ে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

তিনি আরও বলেন, সন্ধ্যার পর থেকে বেশ কিছু লোক আমাদের বাড়ির আশপাশে ঘুরাফেরার কারণে আমার পরিবার ও আশপাশের বাসিন্দারা আতঙ্কে দিন কাটানোর পাশাপাশি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।

শাখের ইসলাম রাজু মিরসরাই পৌরসভার কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করেছে। মাদক, হত্যা, চাঁদাবাজি, জুলুম অত্যাচারের সীমা ছাড়িয়েছে। তার অত্যাচারে এলাকায় প্রতিনিয়ত আতঙ্ক বিরাজ করছে। তার অত্যাচারের কেউ মুখ খুলতে সাহস পায়নি। মুখ খুললেই তার ওপর চলে অমানবিক নির্যাতন। তার নির্যাতনে এলাকার অনেকেই পঙ্গু হয়েছেন বলে জানা গেছে।

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm