s alam cement
আক্রান্ত
৫১৩৯০
সুস্থ
৩৭২৭৭
মৃত্যু
৫৬৮

মামুনুল কাণ্ডে আওয়ামী লীগ নেতা মহিবুল্লাহ হত্যা মামলার প্রধান আসামি পুলিশের কব্জায়

0

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বহুল আলোচিত আওয়ামী লীগ নেতা মহিবুল্লাহ হত্যা মামলার প্রধান আসামি রাঙ্গুনিয়া উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য, চাঁদাবাজ ও একাধিক মামলার আসামি মো. ইউনুছ মনি ওরফে মইন্যাকে (৫০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার (৩ মে) দুপুর ১২টায় চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার (রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) মো. আনোয়ার হোসেন শামীমের নেতৃত্বে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার শিলক ইউনিয়নের নটুয়া টিলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মো. ইউনুছ মনি রাঙ্গুনিয়া উপজেলার কোদালা সেনবাড়ি এলাকার মৃত নূর হোসেনের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মামলা হওয়ার পর থেকে ইউনুছ শিলকের দুর্গম পাহাড়ে আত্মগোপনে ছিল। সে দীর্ঘদিন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখকে ফাঁকি দেওয়ার জন্য দ্রুত স্থান বদলাতে থাকতে। এইভাবে কয়েকবার তার কাছাকাছি গিয়েও তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। তাকে গ্রেপ্তারের ধারাবাহিক অভিযানে সোমবার সহকারী পুলিশ সুপার (রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) মো. আনোয়ার হোসেন শামীম ও রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবের নেতৃত্বে দুর্গম পাহাড় থেকে ধাওয়া করে তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। এছাড়া ইউনুছ যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর হওয়া সাবেক বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর অন্যতম বিশ্বস্ত সহযোগী বলেও জানা যায়।

এ বিষয়ে চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার (রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) মো. আনোয়ার হোসেন শামীম চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, অনেকদিন ধরে নজরদারি চালানোর পর আজ (সোমবার) দুপুরে আমরা ইউনুছ মনিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি ঘটনার সঙ্গে নিজের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছেন। তদন্ত করে এই মামলার ঘটনায় যুক্ত অন্যান্য সকল আসামিকেও গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য, নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে একটি রিসোর্টে নারীসহ হেফাজত ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে অবরুদ্ধ করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে (৩ এপ্রিল) রাত ৮টায় রাঙ্গুনিয়া উপজেলার কোদালায় বিক্ষোভ মিছিল বের করেন হেফাজতে ইসলাম ও স্থানীয় বিএনপি জামাতের নেতা কর্মীরা। এক পর্যায়ে তারা বিক্ষোভরত অবস্থায় অতর্কিত হামলা চালায়। এতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য মো. মহিবুল্লাহ, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আবদুল জব্বার ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক দিলদার আজম লিটন গুরুতর আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় মহিবুল্লাহকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নগরীর পার্কভিউ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে তার মৃত্যু হয়।

Din Mohammed Convention Hall

এএন/এসএ

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm