মাঝরাতে চবিতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত অন্তত ৪

আ জ ম নাছির অনুসারী দুই গ্রুপের বিবাদ

0

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের একাকার ও বাংলার মুখ গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় গ্রুপের অন্তত ৪ জন আহত হয়েছে। বিবাদমান গ্রুপ দুইটি নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছিরের অনুসারী।

মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) রাত ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ আব্দুর রব হলে এই ঘটনা ঘটে।

এই ঘটনার জের ধরে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা বিরাজ করছে। সংঘর্ষ ছড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় হলের সামনে ইতিমধ্যে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আহতদের মধ্যে দুজন হলেন উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের ছাত্র মো. আলাউদ্দিন, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ছাত্র জিহাদ। তবে বাকি দুজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারের কর্তব্যরত চিকিৎসক আতাউল গনি পারভেজ চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘আমাদের এখানে চারজন চিকিৎসা নিতে এসেছে। এদের মধ্যে আলাউদ্দিন চোখে ও জিহাদ নাকে আঘাত পেয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য আমরা তাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দিয়েছি। এছাড়া বাকি দুইজন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছে।’

জানা যায়, সন্ধ্যায় একাকার গ্রুপের এক কর্মীর সাথে বাংলার মুখের এক কর্মীর হাতাহাতি হয়। এ ঘটনার জেরে রাতে দুই গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও ইট পাটকেল ছোঁড়াছুড়ির ঘটনা ঘটে। এতে ইটের আঘাতে কয়েকজন আহত হয়।

এ বিষয়ে একাকার গ্রুপের নেতা সালেহ আকরাম বাপ্পি চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘জুনিয়রদের মধ্যে হাতাহাতি হয়েছে। আমরা সিনিয়ররা বসে মীমাংসা করে ফেলবো।’

বাংলার মুখ গ্রুপের নেতা আবু বকর তোহা বলেন, ‘কথাকাটির জেরে জুনিয়রদের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে। ওদের (একাকার) সিনিয়র না থাকায় রাতে সমাধান করা যায়নি। দিনে বসে বিষয়টা মীমাংসা করে ফেলবো।’

অন্যদিকে মুঠোফোনে যোগাযোগ করেও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূইয়ার সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

এমআইটি/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm