মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে হত্যা, আমৃত্যু কারাদণ্ড ৩ ভাইয়ের

চট্টগ্রামের আনোয়ারায় বিলে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে সাহেদ হত্যার ঘটনায় আপন তিন ভাইকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার (১০ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামের ৭ম অতিরিক্ত দায়রা জজ আ স ম শহীদুল্লাহ কায়সারের আদালত এই রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন আনোয়ারা উপজেলার শিলাইগড়া ৪ নম্বর ওয়ার্ড খলিল মেম্বাবের নতুন বাড়ীর মৃত আলি আহমেদের তিন ছেলে হারুন রশিদ (৪০), জাহেদ হোসেন টুন্টু (৩২) ও আনোয়ার হোসেন (৩৬)।

মামলার নথি থেকে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ১ জুলাই আনোয়ারা উপজেলার মধ্যম শিলাইগড়া ৪ নম্বর ওয়ার্ডে মোহাম্মদ শাহেদের বাড়ির পাশের বিলে আসামি জাহেদ হোসেন জাল বসিয়ে মাছ ধরতে গেলে তাকে শাহেদ বাধা দেয়। এই নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

মাছ ধরতে না দেওয়ার ক্ষোভে পরে জাহেদ তার দুই ভাই হারুন ও আনোয়ারকে ডেকে আনে। এরপর তারা একসঙ্গে ধারালো কিরিচ, দা ও লোহার রড দিয়ে শাহেদের ওপর হামলা করে। এক পর্যায়ে হারুন দা দিয়ে শাহেদের মাথায় কোপ দেন। গুরুতর অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেলে নিয়ে আসা হলেও ঘটনার পরদিন মারা যান সাহেদ।

সাহেদের মৃত্যুর দিনই তিন ভাইকে আসামি করে আনোয়ারা থানায় শাহেদের চাচা মো. ইউনুছ একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলা তদন্ত শেষে ২০১৪ সালের ২৩ জুলাই আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। ২০১৬ সালের ২০ জানুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। মামলায় ২২ জন সাক্ষীর মধ্যে ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত এই রায় দেন।

সাজা ঘোষণার সময় আসামি হারুন রশিদ পলাতক ছিলেন। তার বিরুদ্ধে আদালত গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

বিএস/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!