s alam cement
আক্রান্ত
১০২৩১৪
সুস্থ
৮৬৮৫৬
মৃত্যু
১৩২৮

মডেল পিয়াসার রান্নাঘরে বিদেশি মদ, টেবিলে ইয়াবা আর ফ্রিজবন্দি সিসা

আটক ব্ল্যাকমেইলিংয়ের অভিযোগে

0

চট্টগ্রামের মেয়ে ঢাকার মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসার বাসায় অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে বিদেশি মদ, ইয়াবা ও সিসা উদ্ধার করা হয়। অভিযানের সময় পিয়াসাকে তার বাসার একটি রুমে রাখা হয়। ওই রুমে ডিবির দুজন নারী অফিসার ছিলেন। অভিযান শেষে নারী সদস্যরা পিয়াসাকে একটি মাইক্রোবাসে তুলে ডিবি অফিসে নিয়ে যান।

রোববার (১ আগস্ট) রাতে গোয়েন্দা পুলিশের গুলশান বিভাগের একটি দল বারিধারার ৯ নং রোডের ৩ নং বাসায় এই অভিযান পরিচালনা করে।

মডেল পিয়াসার রান্নাঘরে বিদেশি মদ, টেবিলে ইয়াবা আর ফ্রিজবন্দি সিসা 1

জানা গেছে, অভিযান পরিচালনাকালে গোয়েন্দা পুলিশ পিয়াসার ঘরের টেবিল থেকে চার প্যাকেট ইয়াবা জব্দ করে। তবে ভেতরে কতগুলো ট্যাবলেট রয়েছে— এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এছাড়াও পিয়াসার রান্নাঘরের ক্যাবিনেট থেকে ৯ বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার করা হয়। অভিযানের একপর্যায়ে পিয়াসার ফ্রিজ খুলে একটি আইসক্রিমের বাক্স থেকে সিসা তৈরির কাঁচামাল এবং বেশ কয়েকটি ই-সিগারেট পাওয়া যায়। এছাড়াও তার কাছ থেকে চারটি স্মার্টফোনও জব্দ করা হয়েছে।

ডিবি পুলিশ জানিয়েছে, পিয়াসার বিরুদ্ধে ব্ল্যাকমেইল করে অর্থ আদায়ের অভিযোগে আটক করা হয়েছে। পিয়াসা ছাড়াও ডিবি পুলিশ মোহাম্মদপুরে আরেক মডেলকে আটকের জন্য রাজধানীর মোহাম্মদপুর বাবর রোডে অভিযান চালাচ্ছে।

মডেল পিয়াসার রান্নাঘরে বিদেশি মদ, টেবিলে ইয়াবা আর ফ্রিজবন্দি সিসা 2

বিভিন্ন সময়ে নানা ঘটনায় আলোচনায় আসেন পিয়াসা। ২০১৭ সালে মে মাসে বনানীর রেইনট্রি হোটেলে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন। ওই ঘটনায় তার নাম সামনে আসে।

এশিয়ান টেলিভিশনের সাবেক পরিচালক এবং প্রিভিউ কমিটির প্রধান ফারিয়া পিয়াসা। দীর্ঘদিনের প্রেমিক ব্যবসায়ী শাফাত আহমেদকে বিয়ে করেন তিনি। এনটিভির রিয়েলিটি শো ‘সুপার হিরো সুপার হিরোইন’র অন্যতম প্রতিযোগী ছিলেন ফারিয়া পিয়াসা। জড়িত টিভি উপস্থাপনা ও মডেলিংয়ে।

সর্বশেষ গুলশানের অভিজাত ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহান মুনিয়ার তরুণীর লাশ উদ্ধারের পর যে মামলা হয়েছিল তাতেও পিয়াসার নাম ছিল।

২০১৭ সালের মে মাসে বনানীর রেইনট্রি হোটেলে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন। ওই ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলার এজাহারে নাম ছিল ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসার। প্রথমে মামলা করতে ভুক্তভোগীদের সহযোগিতা করেছিলেন পিয়াসা। কিন্তু সেই পিয়াসার বিরুদ্ধেই আবার মামলা তুলে নেওয়ার হুমকির অভিযোগে জিডি করেছিলেন ভুক্তভোগী। চার বছর পর আবারও আলোচনায় আসেন সেই পিয়াসা।

সিপি

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm