s alam cement
আক্রান্ত
৩৪৪৬৬
সুস্থ
৩১৭৭৫
মৃত্যু
৩৭১

ভোট ফেলে চিরতরে চলে গেলেন তারেক সোলাইমান সেলিম

0

চট্টগ্রামের ৩১ নম্বর আলকরণ ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর ও ত্যাগী আওয়ামী লীগ নেতা তারেক সোলাইমান সেলিম আর নেই। ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন ভারতে চিকিৎসাধীন ছিলেন পর পর ৪ বার চসিকের কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়া এই নেতা।

সোমবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাজিবুল আহসান সুমন চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আলকরণ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ ছালেহ্‌র ছেলে তারেক সোলাইমান সেলিম স্কুল জীবন থেকেই ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত হয়ে পড়েন। সেই থেকে বিরোধী পক্ষের শত অত্যাচার-নির্যাতন সয়েও তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আর্দশ ও নীতি থেকে চুল পরিমাণ বিচ্যুত হননি। চট্টগ্রামে ছাত্রলীগের রাজনীতির তীর্থস্থান হিসেবে পরিচিত সিটি কলেজ ছাত্রলীগের রাজনীতিতে আলাদা প্রভাব ছিল তারেক সোলায়মান সেলিমের।

৭৫ পরবর্তী সময়ে আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে আন্দোলন সংগ্রামে একদম সামনের কাতারে ছিলেন তিনি। স্থানীয় রাজনীতিতে তুমুল জনপ্রিয় এই নেতা টানা ৪ বার আলকরণ থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেও এবারের চসিক নির্বাচনে দলের মনোনয়ন বঞ্চিত হন তিনি। মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের শুরুতে মাঠে সরব থাকলেও প্রথম দফা নির্বাচন স্থগিত হয়ে যাওয়ার পর তারেক সোলায়মান সেলিমের ক্যান্সার আক্রান্ত হওয়ার খবর আলোচনায় আসে।

Din Mohammed Convention Hall

ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পর টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে না পেরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে মানবিক সাহায্যের আবেদন জানিয়ছিলেন তিনি।

প্রথম দিকে চট্টগ্রামে চিকিৎসা নিলেও পরে ঢাকার ডেল্টা হাসপাতালে চিকিৎসা নেন তিনি। সে সময় তাকে দ্রুত উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর বা থাইল্যান্ডে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন হাসপাতালটির চিকিৎসকরা। বিদেশে এতো ব্যয়বহুল চিকিৎসার সামর্থ না থাকায় চিকিৎসার ব্যয় বহন করার আকুল আকুতি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর খোলা চিঠি লিখেছিলেন আলকরণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর তারেক সোলাইমান সেলিম।

প্রধানমন্ত্রী বরাবরে লেখা চিঠিতে তারেক সোলাইমান সেলিম তার দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের বর্ণনা দিয়ে উল্লেখ করে লিখেছেন, ‘বর্তমানে আমার এই কষ্টদায়ক পরিস্থিতিতে আপনার মমতাময়ী হাত সদয়ভাবে বাড়িয়ে দেবেন এটা আশা করতে পারি। আমার চিকিৎসা চালিয়ে নিতে আপনার সদয় আর্থিক সহযোগিতায় আমাকে বাধিত করবেন।’

এআরটি/সিপি

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm