ভারতের নীল ঢেউয়ের আঘাতে মুখথুবড়ে ক্যারিবীয় ঝড়ের বিদায়

0

ক্যারিবীয় ঝড় ভারতীয় উপকূলে আছড়ে পরে তছনছ করবে সেরকম অনেকেই হয়তো ভেবেছিলেন। কিন্তু যেভাবে হুংকার ছড়িয়ে আঘাত হানার কথা সেভাবে উপকূলে আঘাত হানতে পারেনি। উল্টো ভারতের নীল ঢেউয়ের আঘাতে দিশেহারা তারা। সোজা বাংলায় বললে এবারের বিশ্বকাপে বিদায়ঘণ্টা বাজলো ওয়েস্ট ইন্ডিজের। ফলে আফগানিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার পর তৃতীয় দল হিসেবে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিলো টুর্নামেন্টের ইতিহাসের প্রথম দুইবারের চ্যাম্পিয়নরা। অন্যদিকে ৬ ম্যাচ শেষে এখনও পর্যন্ত বিশ্বকাপে অপরাজিতই রইল ভারত। তাদের সংগ্রহে রয়েছে ১১ পয়েন্ট। আর মাত্র ১টি পয়েন্ট হলেই নিশ্চিত হবে সেমিফাইনালের টিকিট।

প্রথম ছয় ম্যাচ থেকে মাত্র ৩ পয়েন্ট থাকায়, টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে শেষের তিনটি ম্যাচই জিততে হতো ওয়েস্ট ইন্ডিজের। কিন্তু ভারতের বিপক্ষে সে তিন ম্যাচের প্রথমটিতেই মুখ থুবড়ে পড়েছে জেসন হোল্ডারের দল। ভারতীয়দের করা ২৬৮ রানের জবাবে তারা অলআউট হয়েছে মাত্র ১৪৩ রানে। ভারত ম্যাচটি জিতেছে ১২৫ রানের বড় ব্যবধানে।

ভারতের নীল ঢেউয়ের আঘাতে মুখথুবড়ে ক্যারিবীয় ঝড়ের বিদায় 1
প্রথম দেখায় মনে হবে কাউকে হাততালি দিচ্ছেন কিংবা হাতজোড় করে ক্ষমা চাচ্ছেন। আসলে এর কোনটায় নয়, উইকেট পাওয়ার পর হার্দিক পান্ডিয়ার ভিন্নরকম উদযাপন।

ব্যাটিং উইকেট। ম্যাচ শুরু হওয়ার আগে সবাই বলছিলেন। এ মাঠে হওয়া আগের দুই ম্যাচও সে কথাই বলছিল। টসে জিতে বিরাট কোহলির ব্যাটিং বেছে নেওয়াও সে কারণেই। সে মাঠেই কি না ২৬৮ তাড়া করতে নেমে ১২৫ রানে হেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৩৫ ওভারের মধ্যে ১৪৫ রানেই গুটিয়ে গেছে উইন্ডিজ। ম্যাচের আগে উইকেট সংক্রান্ত ভবিষ্যদ্বাণী দেওয়া থেকে নিজেদের দূরে রাখতেই চাইবেন বিশেষজ্ঞরা।

বিশেষজ্ঞরা কী করবেন, সেটা তাদের ব্যাপার। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল কী করবে, সেটা মোটামুটি নিশ্চিত। আগামী ৪ জুলাই আফগানিস্তান ম্যাচের আগের দিনই নিকোলাস পুরান ছাড়া বাদবাকিরা সবাই ব্যাগ গুছিয়ে রাখতে পারবেন। কারণ, বিশ্বকাপ থেকে উইন্ডিজদের বিদায় বৃহস্পতিবার ওল্ড ট্রাফোর্ডেই নিশ্চিত হয়ে গেছে। শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে শুধু নিয়ম রক্ষার জন্যই নামবে তারা। মাসের মধ্যভাগে শুরু হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টে খেলার সুযোগ পাওয়া পুরান তত দিন অপেক্ষা করবেন নাকি একবার বাড়ি থেকে ঘুরে আসবেন, কে জানে!

ভারতের নীল ঢেউয়ের আঘাতে মুখথুবড়ে ক্যারিবীয় ঝড়ের বিদায় 2
ভারতের নীল ঢেউয়ে এভাবেই মুখথুবড়ে পড়ে ক্যারিবীয় ব্যাটিং লাইন।

তবে ভারত দল যে কোনো রকম ছুটি পাচ্ছে না সেটা একদম নিশ্চিত। অস্ট্রেলিয়ার মতো একেবারে নিশ্চিতভাবে সেমিফাইনালে তাদের তুলে এখনো দেওয়া যাচ্ছে না। কিন্তু এমন দুর্দান্ত বোলারে পরিপূর্ণ একটি দল বাকি তিন ম্যাচ (ইংল্যান্ড, বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা) থেকে একটি পয়েন্ট পাবে না, এমন বাজি ধরতে রাজি হবে না কেউই।

ভারতের স্পিন আক্রমণকে কীভাবে সামলাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এ নিয়ে আগ্রহ ছিল। কিন্তু স্পিনাররা আক্রমণে আসার আগেই যে ম্যাচ শেষ হওয়ার দশা! একদিকে মোহাম্মদ শামি উইকেট তুলে নিচ্ছেন, অন্যদিকে যশপ্রীত বুমরার বলে আতঙ্কে কাঁপছেন উইন্ডিজের পেস সামলাতে অভ্যস্ত ব্যাটসম্যানরা। হার্দিক পান্ডিয়াও সুযোগ বুঝে উইকেট তুলে নিলেন এক ফাঁকে। কুলদীপ যাদব, যুজবেন্দ্র চাহালরাও বা বাদ যাবেন কেন? উইন্ডিজদের অত্যাচারে যোগ দিলেন তাঁরাও।

ভারতের নীল ঢেউয়ের আঘাতে মুখথুবড়ে ক্যারিবীয় ঝড়ের বিদায় 3
আবারও ভারতের ব্যাটিংয়ের দায়িত্ব একাই কাঁধে তুলে নিতে হলো বিরাট কোহলী। করলেন বিশ্বকাপের এবারের আসরের টানা চতুর্থ ফিফটি।

এক শ পেরোনোর আগেই ৫ উইকেট হারানো ওয়েস্ট ইন্ডিজ ধ্বংসস্তূপ হলো এক শ পেরোনোর পর। প্রথম স্পেলে দুর্দান্ত বল করেও উইকেট না পাওয়ার দুঃখ বুমরা ভুললেন এবার। আগের ম্যাচের ট্র্যাজিক হিরো কার্লোস ব্রাফেটকে বিদায় দিয়ে পরের বলেই অ্যালেনকেও তুলে নিলেন। মোহাম্মদ শামি এসে একমাত্র বাধা হেটমায়ারকেও ড্রেসিংরুমের আরামদায়ক পরিবেশে বিশ্রাম নেওয়ার সুযোগ করে দিলেন। শেলডন কটরেল ও কেমার রোচের খুদে দুটি ইনিংসে শেষ দুই উইকেটে ৩১ রান যোগ করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শামির বলে ওশান টমাস যখন বিদায় নিলেন ম্যাচের তখনো ৯৪ বল বাকি!

১৬ রানে ৪ উইকেট পেয়েছেন শামি। ৬ ওভারে ৯ রান দিয়ে ২ উইকেট বুমরার। টেল এন্ডারদের পাগলাটে ব্যাটিংয়ের শিকার চাহাল ২ উইকেট পেয়েছেন ৩৯ রানে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
ভারত: ৫০ ওভারে ২৬৮/৭ (রাহুল ৪৮, রোহিত ১৮, কোহলি ৭২, শঙ্কর ১৪, কেদার ৭, ধোনি ৫৬*, পান্ডিয়া ৪৬, সামি ০, কুলদীপ ০*; কটরেল ২/৫০, রোচ ৩/৩৬, হোল্ডার ২/৩৩)
ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৩৪.২ ওভারে ১৪৩/১০ (গেইল ৬, আমব্রিস ৩১, হোপ ৫, পুরান ২৮, হেটমায়ার ১৮, হোল্ডার ৬, ব্র্যাথওয়েট ১, অ্যালেন ০, রোচ ১৪*, কটরেল ১০, টমাস ৬; সামি ৪/১৬, বুমরাহ ২/৯, পান্ডিয়া ১/২৮, কুলদিপ ১/৩৫, চেহেল ২/৩৯)
ফল: ১২৫ রানে জয়ী ভারত
ম্যাচসেরা: বিরাট কোহলি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm