ভারতফেরত সেই ব্যবসায়ীকে পাঠানো হল কোয়ারেন্টাইনে

চট্টগ্রাম প্রতিদিনে প্রতিবেদন প্রকাশের জের

0

চট্টগ্রাম নগরীর অক্সিজেন এলাকার ভারতফেরত সেই জাহাঙ্গীর আলমকে অবশেষে ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে’ (নিজ ঘরে সার্বক্ষণিক অবস্থান) যেতে বাধ্য করেছে পুলিশ।

রোববার চট্টগ্রাম মিমি সুপার মার্কেটের ব্যবসায়ী সদ্য ভারতফেরত জাহাঙ্গীর আলমকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে পুলিশ তৎপর হয়ে ওঠে। ভারত থেকে ফেরার পর ওই ব্যবসায়ী প্রকাশ্যে ঘোরাফেরা করছিলেন। করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কায় এ নিয়ে অনেকেই উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

নগরীর বায়েজিদ থানা সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রাম প্রতিদিনে প্রকাশিত প্রতিবেদনটি দৃষ্টিগোচর হওয়ার পর বায়েজিদ থানার পুলিশ জাহাঙ্গীর আলমের সাথে মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করে। কিন্তু তার নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। এরপর পুলিশ মিমি সুপার মার্কেটের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন জায়গায় তার খোঁজে তল্লাশি চালায়। এভাবে সারারাত খোঁজাখুজির পর সোমবার (২৩ মার্চ) সকালে অক্সিজেন এলাকায় জাহাঙ্গীর আলমের দেখা মেলে। এরপর তাকে ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে’ (নিজ ঘরে সার্বক্ষণিক অবস্থান) যেতে বাধ্য করে পুলিশ।

বায়েজিদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা প্রিটন সরকার বলেন, চট্টগ্রাম প্রতিদিনের সংবাদটি দেখেই আমরা জাহাঙ্গীর আলমকে খোঁজার অনেক চেষ্টা করি। মোবাইল বন্ধ থাকায় একটু সমস্যা হয়েছিল। তারপর নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কেউ তাকে চিনে না বললে আরও বিপদে পড়ি। তবে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকে সারা রাত। সকালের দিকে তাকে খুঁজে পাই আমরা। নিয়ম না মানলে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণসহ ঢাকায় পাঠিয়ে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে বর্তমানে তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তার সাথে অন্যান্য সদস্যদেরও হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার জন্য পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

আরএ/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন