বড় বোনের পর চলে গেলেন ছোট বোনও, বাবাকে দেওয়া কথা আর রাখা হল না

0

চট্টগ্রামের দুই মেধাবী মুখ সাবরিনা খালেদ অ্যানি (২৩) সামিয়া খালেদ শ্রাবণী (১৮)। পাঁচ দিন আগে নগরীর বাকলিয়ার রাহাত্তারপুলের বাসায় গ্যাস বিস্ফোরণে পুড়ে যান দুই বোনই। এরপর রোববার (৬ ফেব্রুয়ারি) সবাইকে কাঁদিয়ে পৃথিবী ছেড়ে চলে যান বড় বোন অ্যানি। ঠিক পরদিন সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) বড় বোনের কাছে চলে গেলেন ছোট বোনটিও।

বড় বোনের পর চলে গেলেন ছোট বোনও, বাবাকে দেওয়া কথা আর রাখা হল না 1

বড় বোন অ্যানির শরীরের ৫৬ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। অন্যদিকে ছোট বোন শ্রাবণীর শরীরের ৩৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল। দুই বোনেরই শ্বাসনালী পোড়া ছিল বলে জানান চিকিৎসক।

আলাউদ্দিন খালেদ আর শারমিন খালেদ দম্পতির দুই কন্যা বাবা-মাকে কথা দিয়েছিলেন লেখাপড়া শেষ করে ধরবেন পরিবারের হাল। সেই কথা তাদের আর রাখা হল না। ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে শেষ পর্যন্ত হার মানতে হল দুই বোনকেই।

সাবরিনা খালেদ অ্যানি চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে অনার্স ও মাস্টার্স করেছেন। আর সামিয়া খালেদ শ্রাবণী চট্টগ্রামের সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজের কমার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন।

গত ৩ ফেব্রুয়ারি সকালে চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়া রাহাত্তরপুলের চান্দাপুকুর পাড় এলাকায় বিসমিল্লাহ টাওয়ারের পঞ্চম তলায় গ্যাস বিস্ফোরণে দগ্ধ হন এই দুই বোন। তাদের মা-বাবা দুজনেই গ্রামের বাড়ি চন্দনাইশে যাওয়ায় সেই বাসায় দুই বোন ছাড়া কেউ ছিল না ঘটনার সময়ে।

Yakub Group

জানা যায়, গ্যাসলাইনে লিকেজ অথবা চালু থাকা চুলা থেকে নির্গত গ্যাস জমে বিস্ফোরণ হয়। বিস্ফোরণের এই ঘটনায় পঞ্চম তলার ওই বাসা ছাড়াও আশপাশের আরো দুটি বাসার দরজা-জানালাসহ আসবাবপত্র বিধ্বস্ত হয়। বাসার কেয়ারটেকারকে বারবার গ্যাস লিকেজের কথা হলেও তারা সেই সতর্কবাণী গ্রাহ্য করেনি বলে অভিযোগ অ্যানি-শ্রাবণীর বাবার।

এ ঘটনায় গুরুতর দগ্ধ দুই বোনকে প্রথমে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের ঢাকায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়।

অ্যানি ও শ্রাবণীর গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের চন্দনাইশের ফতেনগর গ্রামে। সেখানেই তাদের দাফন করা হয়েছে।

গত ৫ জানুয়ারি তাদের বাবা আলাউদ্দিন খালেদ চন্দনাইশের জোয়ারা ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm