s alam cement
আক্রান্ত
৫৪৮০৭
সুস্থ
৪৬১৯১
মৃত্যু
৬৪২

ব্যাংকার জেনে অস্ত্র ঠেকিয়ে পিনকোড নিয়ে এটিএম থেকে টাকা তুলে নিল ছিনতাইকারীরা

যাত্রীবাহী গাড়ি সাজিয়ে ওঁৎ পেতে ছিল ছিনতাইকারীরা

0

চট্টগ্রামে দুই তরুণ ব্যাংকারকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে মাইক্রোবাসে আটকে রেখে অস্ত্রের মুখে পিনকোড নিয়ে এটিএম বুথ থেকে টাকা তুলে নিয়েছে ছিনতাইকারীরা। পরে দুজনের চোখে মলম লাগিয়ে রাস্তার পাশে ফেলে দেওয়া হয়।

গত বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মিরসরাই উপজেলার বারৈয়ারহাট অংশে এ ঘটনা ঘটে।

ছিনতাইয়ের শিকার ব্যক্তিরা হলেন, ইসলামী ব্যাংক বারৈয়ারহাট শাখার কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মোমিন, একই ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের কর্মকর্তা মিজানুর রহমানসহ আরও এক অজ্ঞাতনামা ব্যক্তি।

ছিনতাইকারীরা এই তিনজনের মধ্যে ব্যাংকার আবদুল্লাহ আল মোমিনকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তার এটিএম কার্ডের পিনকোড জেনে নেয়। এরপর তাকে মাইক্রোবাসে রেখেই সেই পিনকোডসহ এটিএম কার্ডটি নিয়ে নিকটস্থ শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংকের এটিএম বুথে যায়। তারা কয়েক দফায় মোট ৪০ হাজার টাকা তুলে নেয় ওই কার্ড ব্যবহার করে।

তবে ছিনতাইয়ের শিকার ব্যক্তিরা জানিয়েছেন, অস্ত্রের মুখে জিম্মি করলেও তাদেরকে মারধর কিংবা শারীরিক কোনো আঘাত করেনি ছিনতাইকারীরা।

আবদুল্লাহ আল মোমিনের ছোট ভাই চট্টগ্রামের সাংবাদিক রেজা মুজাম্মেল ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে বলেন, বৃহস্পতিবার রাত সাতটার দিকে আবদুল্লাহ আল মোমিন, মিজানুর রহমানসহ অন্য এক অপরিচিত যাত্রী চট্টগ্রামে আসার উদ্দেশ্যে বারৈয়ারহাটে অপেক্ষমাণ একটি মাইক্রোবাসে ওঠেন। ওই গাড়িতে আগে থেকেই যাত্রীবেশে চারজন ছিলেন। গাড়ি মিরসরাই আসার আগে বার বার রাস্তায় গাড়ি ব্রেক করছিল গাড়ির চালক।

Din Mohammed Convention Hall

রেজা মুজাম্মেল বলেন, তার ভাইয়ের সঙ্গে অন্য যাত্রীদের কথাবার্তায় ছিনতাইকারীরা আঁচ করতে পারে তার ভাই ও অন্যজন ব্যাংক কর্মকর্তা। বিষয়টি আঁচ করতে পেরে ছিনতাইকারীরা তার ভাই ও তার সহকর্মীকে গাড়িতে আটকে রেখে সাথে আসা অন্য যাত্রীকে রাস্তার ধারে ফেলে দেয়।

রেজা আরও বলেন, এ ঘটনার পর ছিনতাইকারী তিনজন গাড়িতে উঠে তার ভাইয়ের দিকে অস্ত্র তাক করে এটিএম কার্ড ও পিনকোড দিতে বলে। কার্ড ও পিনকোড পাওয়ার পর মাইক্রোবাসটি মিরসরাই সদরে আসলে ছিনতাইকারীদের একজন গাড়ি থেকে নেমে শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের একটি বুথ থেকে ৪০ হাজার টাকা তুলে নেয়।

তিনি জানান, টাকা তুলে নিয়ে আসার পর তার ভাইদের সঙ্গে থাকা নগদ সাত হাজার টাকাসহ মোবাইলও কেড়ে নেয় ছিনতাইকারীরা। পরে দুজনের চোখে মলম লাগিয়ে ছড়ারকুল এলাকায় রাস্তার পাশে ফেলে দিয়ে মাইক্রোবাসটি চলে যায়।

রেজা আরও বলেন, এ ঘটনার পর তার ভাইয়েরা অন্ধকারে কোনোমতে পথ হাতড়ে রাস্তার পাশের একটি বাড়িতে গিয়ে বাড়ির বাসিন্দাদের বলেন, তারা ইসলামী ব্যাংকে চাকরি করেন। ছিনতাইকারীরা তাদের চোখে মলম লাগিয়ে তাদের সর্বস্ব নিয়ে গেছে।

পরে ওই বাড়ির সদস্যদের সেবা যত্নে তার ভাইয়েরা কিছুটা সুস্থ বোধ করলে ব্যাংকে যোগাযোগ করেন। ফোন পেয়ে অন্য সহকর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সেখানে তারা প্রাথমিক চিকিৎসা নেন।

তবে এ ব্যাপারে থানায় কোনো অভিযোগ করেননি ভুক্তভোগীরা— জানিয়েছেন সাংবাদিক রেজা মুজাম্মেল।

আইএমই/সিপি

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm