ব্যক্তিগত ছুটি শেষে ইংল্যান্ডের পথে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি

দেশে ছিলেন চারদিন

0

দলের সঙ্গে পুনরায় যোগ দিতে আজ (বুধবার) সকাল দশটায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে চড়ে বসেছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। ওপেনার তামিম ইকবাল পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে গেছেন দুবাইয়ে। আর আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ শেষে ছুটিতে দেশে এসেছিলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। বিশ্বকাপ স্কোয়াডের ১৩ জন আছেন ইংল্যান্ডে। সেখানে বিশ্বকাপের প্রস্তুতিও চলছে।

ত্রিদেশীয় সিরিজ শেষ করে দেশে ফেরার পরই মাশরাফির কাছে দল নিয়ে অনেক কিছু জানতে চেয়েছিলেন সাংবাদিকরা। টাইগার দলপতি সেসব এড়িয়ে যান। যেহেতু পুরো দল আসেনি, তিনি ব্যক্তিগতভাবে চারদিনের ছুটিতে দেশে ফেরেন, তাই দল নিয়ে কথা বলা ঠিক হবে না বলেই যুক্তি দেন নড়াইল এক্সপ্রেস।

এই ছুটির মধ্যে নড়াইলেই সময় কাটিয়েছেন মাশরাফি। মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলেননি। এমনকি তার ব্যক্তিগত যোগাযোগের ফোনটিও বন্ধ ছিল।

আজ ইংল্যান্ডের বিমানে চড়ার আগেও সেভাবে কথা বলেননি মাশরাফি। সৌজন্যতা রক্ষায় যা একটু বলেছেন, তার মধ্যেই দলের জন্য দোয়া চেয়ে নিয়েছেন টাইগার দলপতি। নড়াইল এক্সপ্রেস বলেন, ‘সবাই দোয়া করবেন। চেষ্টা করব ভালো করার। বাংলাদেশ যেন ভালো খেলে।’

মাশরাফি মনে করিয়ে দিলেন, দুটো আলাদা টুর্নামেন্ট। তবে দল যেহেতু ভালো অবস্থায় আছে, ভালো করার আশা তারও। টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়কের ভাষায়, ‘দুইটা আলাদা টুর্নামেন্ট। আশা করি সবার আত্মবিশ্বাস ভালো অবস্থায় আছে। ভালো শুরুটা গুরুত্বপূর্ণ। সেটা পারলে আশা করি ভালো কিছুই হবে।’

ইংল্যান্ডের লেস্টারে আগামী ২৩ মে পর্যন্ত অবস্থান করবে টিম বাংলাদেশ। পরে ২৪ মে থেকে শুরু হবে আইসিসির সাপোর্টিং পিরিয়ড। তখন থেকে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর সকল দায়দায়িত্ব নেবে বিশ্ব ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থাটি। তার আগপর্যন্ত লেস্টারে নিজেদের খরচেই অবস্থান করবে বাংলাদেশ।

এদিকে ২৪ মে থেকেই শুরু হবে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচগুলো। তবে বাংলাদেশের ম্যাচ দুটি হলো ২৬ ও ২৮ মে, কার্ডিফে। তাই ২৩ মে তেই লেস্টার ছেড়ে কার্ডিফে যাবে বাংলাদেশ।

তার আগেই দলের সঙ্গে যোগ দেবেন মাশরাফি। আজই (বুধবার) সব দলের অধিনায়কদের নিয়ে সংবাদ সম্মেলনসহ বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন আছে আইসিসি। সেখানে অংশ নিয়ে পরদিন দলের সঙ্গে যোগ দেবেন তিনি।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন