বক্তব্যে উস্কানি, দুই ‘ইউটিউব মাওলানা’ কক্সবাজারে নিষিদ্ধ

2

উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে প্রশাসনের বাধার মুখে কক্সবাজারের তফসির মাহফিলে যেতে পারেননি আলোচিত দুই ইসলামী বক্তা মিজানুর রহমান আযহারী ও তারেক মনোয়ার।

শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের বারবাকিয়া বাজার ব্রিজের পাশে বৃহত্তর সাবেক গুলদি তফসীর ময়দানে তফসির মাহফিলে ‘ওয়াজ’ করার কথা ছিল দুই আলোচিত ও বিতর্কিত ইসলামী বক্তা মিজানুর রহমান আযহারী ও তারেক মনোয়ার। এর আগেই তাদের ওপর প্রশাসন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। পেকুয়া ছাড়াও এই দুই বক্তার বিরুদ্ধে নানা স্থানে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করেছে স্থানীয়রা।

জানা যায়, সকাল দিগন্ত ফাউণ্ডেশন নামে একটি সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত তফসির মাহফিলে এই দুই আলোচিত বক্তার ‘ওয়াজ’ করার কথা ছিল। পেকুয়ার বারবাকিয়া বাজার ব্রিজের দক্ষিণ পশ্চিম পাশে গুলদীতে এই তফসির মাহফিল সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়ে রাত ১টা পর্যন্ত চলবে। জানা গেছে, মাহফিলে বিপুল সংখ্যক মানুষের সমাগম ঘটেছে। তবে মাহফিলে এই দুই বক্তার আসার খবরে এলাকায় ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। এ অবস্থায় প্রশাসন মাহফিল আয়োজক কমিটির সাথে বৈঠক করে দুই বক্তাকে মাহফিলে আসতে নিষেধ করে। এ কারণে ওই দুই বক্তা পেকুয়ার মাহফিলে মাহফিলে আসতে পারেননি।

পেকুয়ায় দুই বক্তার মাহফিলে না আসার ব্যাপারে জানতে চাইলে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

পেকুয়া থানার ওসি মো. কামরুল আজম বলেন, দুই বক্তার মাহফিলে না আসার বিষয়ে আমরা একটি চিঠি পেয়েছি। চিঠিতে দুই বক্তার না আসার ব্যাপারে বলা হয়েছে। এর বেশি কিছু বলতে পারবো না।

জানা যায়, মিজানুর রহমান আযহারী ইউটিউবে জনপ্রিয় হলেও বিভিন্ন মাহফিলে মহানবীর (দ) শারীরিক গঠন ও বিবি খাদিজাকে (র.) নিয়ে বিতর্কিত ও যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত নেতা দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর প্রশংসা ও রাজনৈতিক বক্তব্য দেওয়ার কারণে সুন্নি মুসলিম ও স্বাধীনতার পক্ষের লোকজন তার ওপর বিভিন্ন সময়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে। এর প্রেক্ষিতে তিনি এক ভিডিওবার্তায় মানুষের কাছে ক্ষমাও চাইলেও মিজানুর রহমান আযহারীর মাহফিলকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন জায়গায় উত্তেজনা সৃষ্টি হতে গেছে। সম্ভাব্য প্রতিক্রিয়ার আশঙ্কায় দেশের বিভিন্ন স্থানে মিজানুর রহমান আযহারী ও তারেক মনোয়ারের মাহফিল নিষিদ্ধ করে প্রশাসন।

জানা যায়, শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) কুমিল্লাসহ সারা দেশে মিযানুর রহমান আযহারীর মাহফিল নিষিদ্ধের দাবিতে কুমিল্লা কান্দিরপাড় এলাকায় সর্বস্তরের সুন্নি জনতার ব্যানারে মানববন্ধন করেছে। অন্যদিকে বুধবার (৪ ডিসেম্বর) ফেনী উপজেলার পাঁচগাছিয়া ইউনিয়নের উত্তর কাশিমপুর মডেল দাখিল মাদ্রাসায় মাহফিলে অংশ নেওয়ার কথা ছিল মিজানুর রহমান আযহারীর। স্থানীয় মানুষের আপত্তিতে প্রশাসন আইনশৃঙ্খলা অবনতির আশংকায় মাহফিল বন্ধ করে দেওয়া হয়। মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) বিকেল ফেনীর শহীদ মিনারের সামনে মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করে বিশ্ব সুন্নি আন্দোলন নামের একটি সংগঠন।

উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার জন্য তারেক মনোয়ারসহ এর আগে ১১ নভেম্বর কুমিল্লার জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় আযহারী ও মনোয়ারসহ তিন বক্তার বক্তব্য কুমিল্লায় নিষিদ্ধ করা হয়।

সিএম/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

2 মন্তব্য
  1. Johny বলেছেন

    Jara hok kotha bole tader biruddhe badha asbey ata sabhabik,,, maolana ,tarek monoar & mijanurrahman Al ajhari,,,,banglar sobchaite sumishtobhasi o jubokder hridoye sthan kore nya bokta, so Kuran Nye ay dujon bokta sundor kotha bolte paren o sothik kotha bolen ,jara kuraner mahfil chayna tarai er biruddhe badha sristi korche,,,so shame on bd government,

    1. হাফেজ রশিদ আহমদ বলেছেন

      ইউটিউব মাওলানা! এটি কোন গনমাধ্যমের ভাষা হতে পারে না অনলাইন পত্রিকা চালান গনমাধ্যমের ভাষায় হেডলাইন লেখা শিখুন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন