বেঁচে নেই প্রয়াত শিল্পী শেফালী ঘোষের একমাত্র ছেলে সুকণ্ঠ

0

দেশের হৃদয়বান সংস্কৃতিপ্রেমী ব্যক্তিদের কাছে সাহায্য চেয়েও চট্টগ্রামের আঞ্চলিক গানের সম্রাজ্ঞী প্রয়াত শেফালী ঘোষের একমাত্র ছেলে সুকণ্ঠ দত্ত ছোটনকে বাঁচাতে পারলোনা তার পরিবার। ফুসফুস ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে তিনি চট্টগ্রামের রয়েল হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় সোমবার (১ জুলাই) বিকাল ৪টা ২০মিনিটে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪২ বছর।

সুকণ্ঠের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার শ্বশুর স্বপন কুমার মজুমদার। তিনি চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, সুকণ্ঠ দত্ত সোমবার বিকেল ৪টা ২০মিনিটে রয়েল হাসপাতালে আমাদের কাছ থেকে চিরবিদায় নিলো। অনেক চেষ্টা করেও আমার মেয়ের স্বামীকে বাঁচাতে পারিনি।

কান্নাজড়িতকণ্ঠে তিনি আরও বলেন, আমার মেয়ে (দীপান্বিতা দত্ত) তার দুই ছেলে-মেয়েকে নিয়ে কোথায় যাবে। বাবা হারা সন্তানদের ভবিষ্যত অন্ধকার নেমে আসলো। আমি নিজের মেয়ের স্বামীর মৃত্যু মেনে নিতে পারছি না।

উল্লেখ্য, সুকণ্ঠ দত্ত পঁচিশ দিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। তাকে নগরীর রয়েল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। হাসপাতালের চিকিৎসক কিছু পরীক্ষা দিলে তারা সেগুলো করার জন্য গত ২৫জুন তাকে ঢাকার গ্রিনলাইট হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তার বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করানো হয়। এছাড়া পায়ে রক্ত জমাট বাঁধার কারণে তার পায়ে একটি অপারেশনও করা হয়। পরবর্তীতে পরীক্ষার রিপোর্ট দেখে গ্রিনলাইট হাসপাতালের চিকিৎসকরা বলেন রোগীর অবস্থা ভলো নয়। তার ফুসফুস ক্যান্সার। এরপর ক্যান্সার বিশেষজ্ঞকে দেখালে তিনি কোনো আশা দিলেন না। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী গত ২৯জুন থেকে তাকে রয়েল হাসপাতালের আইসিউতে রাখা হয়েছে। এরমধ্যে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল।

এএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন