বৃহস্পতিবার মশক নিধনে ক্রাশ প্রোগ্রাম চালাবে চসিক

0

ডেঙ্গুমুক্ত চট্টগ্রাম গড়তে বৃহস্পতিবার (৮ আগস্ট) সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত নগর জুড়ে একযোগে বিশেষ ক্রাশ প্রোগ্রাম পরিচালনা করা হবে। চসিকের তিন হাজারের অধিক পরিচ্ছন্নতা কর্মী রাতের পরিবর্তে দিনের বেলায় এই কর্মযজ্ঞে অংশগ্রহণ করবেন।

এ সময় মসজিদ, মন্দির ও সকল ধর্মীয় উপাসনালয়ে ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রচার-প্রচারণা চালানো হবে।

মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসের সম্মেলন কক্ষে এডিস মশা নিধন ও ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধ বিষয়ে মহানগর ও বিভাগীয় পর্যায়ে পরিকল্পনা গ্রহণ সম্পর্কিত সমন্বয় সভায় এ তথ্য জানানো হয়।

সমন্বয় সভায় চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, ডেঙ্গু নিয়ে ভয়ের কারণে মানুষ সচেতন হচ্ছে। আমরা বড় বড় দুর্যোগ মোকাবেলা করে সফল হয়েছি, ডেঙ্গু প্রতিরোধ করেও জয়ী হতে পারবো। এ জন্য সকল মানুষের সহযোগিতা দরকার। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, কর্মস্থল, বাসা-বাড়িসহ সব জায়গায় একযোগে মশা নিধন অভিযান চালালে বেশি সুফল মিলবে।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো.আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহসেন উদ্দিন আহমেদ, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহা, চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম, বিভাগীয় পরিচালক (স্থানীয় সরকার) দীপক চক্রবর্তী, চট্টগ্রাম বন্দরের সদস্য (এডমিন এন্ড প্ল্যানিং) মো. জাফর আলম, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো. নুরুল আলম নিজামী, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন জেলা পুলিশ সুপার নুরেআলম মিনা, চট্টগ্রাম সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর স্বপন কুমার চৌধুরী, সরকারী হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর অঞ্জন কুমার নন্দী, সিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) শ্যামল কুমার নাথ, পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা, বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর, চমেক হাসপাতালের অধ্যক্ষ ডা. সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, ওয়াসার উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক গোলাম হোসেন, রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী সবুক্তগীন, চউক সচিব তাহেরা ফেরদৌস বেগম, চসিক’র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী, বিএমএ সভাপতি অধ্যাপক ডা.মুজিবুল হক খান, অপরাজেয় বাংলাদেশ’র ইনচার্জ মাহবুব উল আলমসহ চট্টগ্রামের সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিরা।

এফএম/এসএস

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন