আক্রান্ত
১১৭৬৪
সুস্থ
১৪১৪
মৃত্যু
২১৬

বৃহত্তর চট্টগ্রামে শনাক্ত হল প্রথম করোনা রোগী

0
high flow nasal cannula – mobile

বৃহত্তর চট্টগ্রামের কক্সবাজারে এই প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছেন। কক্সবাজার সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মহিউদ্দিন এর সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আক্রান্ত একজন নারী রোগী বেশ কয়েকদিন ধরে হাসপাতালের কেবিনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। চিকিৎসার একপর্যায়ে ওই রোগীর মাঝে করোনার লক্ষণ দেখা দেওয়ায় তার রক্তের নমুনা ঢাকার রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠানো হলে মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) দুপুরে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

জানা গেছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ওই নারী রোগী গত ১৫ মার্চ ওমরা হজ পালন শেষে সৌদি আরব থেকে বাংলাদেশে এসেছেন। ৬৫ বছর বয়সী ওই নারীর বাড়ি কক্সবাজারের চকরিয়ার খুটাখালীতে।

কক্সবাজারের সিভিল সার্জন ডা. মাহবুবুর রহমান জানান, এর আগে সন্দেহজনক আরো দুজনের স্যাম্পল পাঠানো হয়েছিল আইইডিসিআরে। তবে তাদের রিপোর্ট নেগেটিভ ছিল। গত ২২ মার্চ শনাক্ত হওয়া রোগীর পাঠানো স্যাম্পলই শুধু পজিটিভ এসেছে। এটাই বৃহত্তর চট্টগ্রামে শনাক্ত হওয়া প্রথম করোনা রোগী বলে জানান তিনি।

এদিকে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ঠান্ডাজনিত অসুস্থতা নিয়ে ২১ মার্চ ৫০১ নম্বর রুমে ভর্তি হওয়া বয়স্ক ওই নারী প্রথমে জানাননি তিনি বিদেশফেরত। ফলে হাসপাতালের চিকিৎসক-সেবিকা সহ সংশ্লিষ্টরা স্বাভাবিক রোগীর মতোই তাকে চিকিৎসাসেবা দিয়ে আসছিলেন। পরে ওই নারী বিদেশফেরত এবং তার মধ্যে করোনার লক্ষণ দেখা দেওয়ায় পরীক্ষার জন্য নমুনা পাঠানো হয় ঢাকায়। নমুনায় পজিটিভ আসায় এখন ওই হাসপাতালের চিকিৎসক-সেবিকারাও আতংকিত হয়ে পড়েছেন বলে জানা গেছে। এমনকি পজিটিভ রিপোর্ট আসার সাথে সাথে অনেক চিকিৎসক হোম কোয়ারেন্টাইনে চলে গেছেন বলেও জানা গেছে। ১৫ মার্চের পর থেকে ওই রোগীর সঙ্গে যোগাযোগকারী আত্মীয়স্বজনদের তালিকা তৈরি করছে পুলিশ।

এদিকে হাসপাতালের একজন চিকিৎসক জানান, আক্রান্ত ওই নারীর মাধ্যমে অনেকের মাঝে কোভিড-১৯ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। তাকে চিকিৎসা দেওয়া চিকিৎসকরা আবার হাসপাতালের অন্য রোগীদের চিকিৎসা দিয়েছেন, তাদের পরিবারের সাথে মিশেছেন। সেই রোগীর স্বজনরা আবার অনেকের সাথে মিশেছেন। এভাবে হয়ত এটা সবার অজান্তে অনেকের মাঝে ছড়িয়ে পড়েছে।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm