বিশেষ অভিযান শুরু সাতকানিয়ার মাদার্শায়, এলজি-কার্তুজসহ গ্রেপ্তার একজন

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার মাদার্শা গ্রামে দৈনিক চট্টগ্রাম প্রতিদিনের সম্পাদক হোসাইন তৌফিক ইফতিখারের বাড়িতে হামলা ও লুটপাটের ঘটনার পর ওই এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে সাতকানিয়া থানার পুলিশ।

জানা গেছে, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি নুরেআলম মিনার নির্দেশনায় বিশেষ এ অভিযানে নেমেছে পুলিশ।

এমনই এক অভিযানে একটি দেশীয় তৈরি এলজি বন্দুক ও পাঁচটি কার্তুজসহ এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) দিবাগত রাত তিনটার দিকে মাদার্শা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের নেতাফকির পাড়ার নেতা ফকির পাড়া জামে মসজিদের পূর্ব পাশের টেলিভিটা ব্রিজের উত্তর পাশের এলাকা থেকে এলজি ও কার্তুজসহ গ্রেপ্তার হওয়া ওই ব্যক্তির নাম মজিবুর রহমান প্রকাশ মিঠা বাদশা (৪৫)। তিনি মাদার্শা ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের রূপনগর এলাকার আসহাব মিয়ার পুত্র।

সাতকানিয়া থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক(এসআই) মোঃ আবদুর রব জানান, অবৈধ অস্ত্র বিক্রির গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে অবৈধ অস্ত্রধারী মজিবুর রহমান প্রকাশ মিঠা বাদশাকে (৪৫) একটি দেশীয় এলজি (বন্দুক) ও ৫টি রাবার বুলেট কার্তুজসহ গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রিটন সরকার বলেন, এ বিষয়ে থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে। যথাযথ পুলিশ এসকর্টের মাধ্যমে আসামিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শিবলী নোমান চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, অবৈধ অস্ত্রধারী ও সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারে বিশেষ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এর আগে বুধবার (১৭ এপ্রিল) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে সাতকানিয়ার মাদার্শা গ্রামে দৈনিক চট্টগ্রাম প্রতিদিনের সম্পাদক হোসাইন তৌফিক ইফতিখারের বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা ও দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় সন্ত্রাসীরা বাড়ির দেয়াল টপকে জানালার গ্রিল কেটে ঘরে ঢুকে কেয়ারটেকারকে বেঁধে ফেলে। পরে তারা স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকাসহ মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

সাংবাদিক হোসাইন তৌফিক ইফতিখার বলেন, ‘বুধবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বাড়ির সীমানা দেয়াল টপকে ছয়জনের সংঘবদ্ধ একদল সন্ত্রাসী জানালার গ্রিল কেটে আমার বাড়িতে ঢোকে। এ সময় ১৮ থেকে ২০ বছর বয়সী ওই ছয় সন্ত্রাসীর মুখ কালো মুখোশে ঢাকা ছিল। ঘরে ঢুকেই তারা অস্ত্রের মুখে বাড়ির কেয়ারটেকারের হাত-পা বেঁধে ফেলে। এ সময় তারা ‘সাংবাদিক তৌফিক কোন্ রুমে আছে’ সেটা জানতে চায়। কেয়ারটেকার বাড়ির সদস্যদের সবাই চট্টগ্রাম শহরে চলে গেছেন— এমন কথা জানানোর পর সন্ত্রাসীরা বাড়ির প্রতিটি কক্ষ তল্লাশি করে। ফেরার সময় আলমারিতে থাকা এক ভরি স্বর্ণ, নগদ ৪০ হাজার টাকা ছাড়াও বিভিন্ন মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়।’

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!