বিপিএল নিয়ে টম মুডি-জয়াবর্ধনের ক্ষোভ প্রকাশ

0

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) আর বিতর্ক যেন সমার্থক। সেই শুরু থেকেই বিপিএলের সঙ্গী বিতর্ক। ম্যাচ গড়াপেটা থেকে শুরু করে একাধিক নাটকের সঙ্গী হয়েছে এই ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টটি। আর নিয়ম পাল্টানোর ব্যাপারটা তো চলছেই। এবারের বিপিএল শুরু হবে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে। কিন্তু তার আগেই শুরু হয়েছে নাটক!

সাকিব আল হাসানের রংপুর রাইডার্সে নাম লেখানো নিয়ে মুখোমুখি ফ্র্যাঞ্চাইজি আর গভর্নিং কাউন্সিল। ঢাকা ছেড়ে তার রংপুরে নাম লেখানোটা মানতে রাজি নন আয়োজকরা। অথচ এভাবেই প্রায় সব আইকনরা নাম লেখিয়েছেন অন্য দলে। বিসিবি পরিচালক মাহবুবুল আনাম জানিয়ে রেখেছেন, ‘নতুন চক্রের চুক্তিপত্র এখনো স্বাক্ষর হয়নি, এ কারণেই ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর দলবদলকে স্বীকৃতি দিতে পারব না আমরা।’ চার বছরের জন্য নতুন চক্রের আওতায় যেতে হবে। এরপরই নাকি শুরু হবে দলবদল।

এভাবে নিয়ম পাল্টানোটা ভাল চোখে দেখেননি টম মুডি ও মাহেলা জয়াবর্ধনে। রংপুর রাইডার্স ও খুলনার দুই কোচ নিজেদের এই ক্ষোভের কথা জানালেন ক্রিকেটের জনপ্রিয় সাইট ইএসপিএন-ক্রিকইনফোকে।

টম মুডির হাত ধরেই রংপুর রাইডার্স দুই বছর আগে জিতে ছিল ট্রফি। চলতি মৌসুমে ঢাকা ডায়নামাইটস ছেড়ে রংপুরে নাম লিখিয়েছেন তিনি। তার সঙ্গে যোগ দিয়েছেন সাকিবও। সেই মুডি ক্রিকইনফোকে বলেন, ‘দেখুন, আমি গত ১২ বছরে অনেক টি-টুয়েন্টি লিগের সঙ্গে জড়িত ছিলাম। তখনই একটা ব্যাপার বুঝেছি, ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর জন্য খেলার কন্ডিশন ও নিয়মে ধারাবাহিকতা রাখাটা বেশ গুরুত্বপূর্ণ।’

এক্ষেত্রে দল নয়, সমর্থকদের কথাও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের ভাবা উচিত বলে মনে করেন তিনি। জানান, ‘এটা শুধু ফ্র্যাঞ্চাইজি কিংবা ম্যানেজমেন্টের জন্য গুরুত্বপূর্ণ না, সমর্থকদেরও জানতে হবে স্থানীয় বা আন্তর্জাতিক কোন ক্রিকেটারদের অনুসরণ করবেন তারা। এভাবেই ফ্র্যাঞ্চাইজির একনিষ্ট ভক্ত তৈরি হয়। যদি বারবারই ইচ্ছেমতো নিয়ম বদলে ফেলা হয়- তবে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে প্রতিযোগিতার মান নিয়ে প্রশ্ন উঠবেই।’

একইভাবে বিপিএল নিয়ে বিরক্ত খুলনা টাইটানসের কোচ মাহেলা জয়াবর্ধনে। শ্রীলঙ্কান এই কিংবদন্তি বলছিলেন, ‘দেখুন, দীর্ঘমেয়াদি একটা পরিকল্পনা থাকা খুবই জরুরী। প্রতি বছর আর টুর্নামেন্ট চলার সময়ই এভাবে নিয়ম বদলানো কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের জন্যই ভালো খবর নয়। বিশ্বের আর সব টুর্নামেন্টেই নিয়মগুলো ঠিক থাকে আর এ নিয়ে সন্তুষ্ট থাকে সব ফ্র্যাঞ্চাইজি।’

ঠিক তাই, বিপিএলের আগের নিয়ম মানলে সাকিব একজন আইকন হিসেবে দল পাল্টাতেই পারেন। এর আগে ২০১৬ সালে এই নিয়মেই দল বদলেছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মুশফিকুর রহিম। একইভাবে তামিম ইকবাল এই নিয়মে খুলনায় ও মুশফিকুর রহিম নাম লেখাতে যাচ্ছেন কুমিল্লায়!

অবশ্য তামিম, মুশফিক কিংবা এউইন মরগানের দল খুঁজে নেওয়া নিয়ে তেমন প্রশ্ন নেই বিপিএল কর্তাদের। সাকিব ঢাকা ডায়নামাইটস ছেড়ে রংপুরে নাম লেখানোর পরই নড়েচড়ে বসেছেন তারা। এখন বলছেন নতুন করে চুক্তি স্বাক্ষর না হলে দলবদল করার নিয়ম নেই। সাকিব দল পাল্টানোর ৪ দিন পরেই বিপিএলের নতুন নিয়মের কথা জানতে পারেন সবাই!

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন