বিপিএল দেখতে হুইলচেয়ারে করে কক্সবাজারের মোবারক চট্টগ্রামে

বুকে বাংলাদেশের বিশাল পতাকা, মুখে হাসি—হুইলচেয়ারে বসে এভাবেই বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) খেলা দেখতে এসেছেন ২৭ বছর বয়সী মোবারক।

শনিবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও ফরচুন বরিশালের ম্যাচ চলাকালীন মোবারকের দেখা মেলে নগরীর সাগরিকা জহুর আহম্মেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।

তাকে ভিআইপি গ্যালারিতে খেলা দেখার সুযোগ করে দেন স্টেডিয়ামের প্রবেশ গেটে দায়িত্বরতরা।

কক্সবাজার থেকে আসা এই ক্রিকেট ভক্তের সঙ্গে আলাপকালে উঠে আসে তার অজানা গল্প।

২৭ বছর বয়সী মোবারক নামের এই ক্রিকেটভক্ত অন্য দশজনের মতো স্বাভাবিক না। হাঁটতে পারেন না তিনি। হুইলচেয়ার ব্যবহার করে চলতে হয়। তবে থেমে নেই মোবারক। ক্রিকেট খেলা দেখা যেন তার নেশা। তাইতো কক্সবাজার থেকে এবারের বিপিএলে বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়দের সমর্থন দিতে ছুটে এসেছেন চট্টগ্রামের সাগরিকা স্টেডিয়ামে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ থেকে মাস্টার্স পাশ এই ক্রিকেটভক্ত শুধু চট্টগ্রামেই নয়, তিনি বাংলাদেশের যেকোনো প্রান্তে ক্রিকেট খেলা দেখতে যান এবং ক্রিকেট ভালোবাসেন। দূর-দূরান্তে ক্রিকেট খেলা দেখতে আসার পেছনের গল্পে আছেন তার আপন ভাই আমির হোসেন।

আমির হোসেন জানান, ভাইয়া সবসময় ক্রিকেট ভালোবাসে৷ আমরা বাঙালিরা ক্রিকেটকে ভালোবাসি। ভাইয়ার ইচ্ছে-আগ্রহ সবকিছুর পেছনে সবসময় থাকার চেষ্টা করি এবং থাকবো।

আলাপকালে মোবারক বলেন, ‘আমার যখন ৬ বছর বয়স, তখন একবার টাইফয়েড জ্বর হয়। টাইফয়েড ভয়ঙ্কর আকার হলে আমি চলাচলের শক্তি হারিয়ে ফেলি। হুইলচেয়ার ব্যবহার করে হাঁটতে হয় এখন। তবে আমি থেমে যাইনি, আমি ছোট থেকেই ক্রিকেট দেখি। শারীরিকভাবে অসুস্থ হলেও আমার মনোবল আমাকে এতদূর এনেছে।’

বাংলাদেশের ক্রিকেটের কোন জায়গায় উন্নতি প্রয়োজন—জানতে চাইলে মোবারক বলেন, ‘মাশরাফিকে বোর্ড সভাপতি করা হলে বাংলাদেশ ক্রিকেট অনেক এগিয়ে যাবে, আশা করছি।’

এদিকে চট্টগ্রামপর্বের দ্বিতীয়দিনে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে ১২ রানে হারিয়েছে ফরচুন বরিশাল।

এআইটি/আরএস/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!