s alam cement
আক্রান্ত
৫৩৭৫৩
সুস্থ
৪১৪৫৩
মৃত্যু
৬২৬

কাজীরহাটকে বড় বিপদ থেকে বাঁচালো ৯৯৯

‘রাতে যাওয়া যাবে না’— বলেছিল বিদ্যুৎ অফিস

0

ছোট্ট একটি ভুলে ঘটতে পারতো অনেক বড় দুর্ঘটনা। শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) রাত ৮টার দিকে চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁওয়ে আগুনের খবর দিয়ে বিদ্যুৎ অফিসে ফোন করে সাড়া না পেয়ে শেষে সহায়তা এল ৯৯৯-এ ফোন করার পর।

শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁও থানাধীন কাজীরহাট জানালীহাট স্টেশন রোডের ইলেকট্রিক সার্ভিস লাইনের মাঝখান থেকে হঠাৎ আগুনের ফুলকি পড়ছিল।

প্রত্যক্ষদর্শী কাজীরহাট বাজার সমিতির সভাপতি মো. বাবুল বলেন, ‘আগুনের ফুলকি দেখে রাত ৮টায় প্রথমে বিদ্যুৎ অফিসে ফোন করি। কিন্তু বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তারা সাড়া দেননি। উল্টো জানানো হলো, ‘এখন রাত, যাওয়া যাবে না। কাল সকালে দেখা যাবে। অন্যদিকে লোকাল ইলেক্ট্রিশিয়ানরাও মেইন রোড হওয়াতে আসতে রাজি হয়নি।’

খবর পেয়ে সেখানে উপস্থিত হন ওই প্রতিষ্ঠানের মালিক নুর মোহাম্মদ সাজ্জাদ। তখন রাত সাড়ে ৮টা। আগুনের ফুলকি আরও বড় আকারে দেখা যাচ্ছিল। তিনি কল করেন ৯৯৯ হেল্পলাইনে। ফোনেই পুরো বিষয়টি তাদের বুঝিয়ে বলেন। হেল্পলাইন থেকে চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের নাম্বার দেওয়া হয়। ফায়ার সার্ভিসে কল দিলে কালুরঘাট ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ৬ মিনিটের মধ্যেই উপস্থিত হয়। ফায়ার সার্ভিসের কল পাওয়ার ৫ মিনিটের মধ্যেই বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তা এসে সেই বিদ্যুতের লাইন বিচ্ছিন্ন করে দেন।

নুর মোহাম্মদ সাজ্জাদ চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘এতো বড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেলাম একমাত্র ৯৯৯ তে কল দেওয়ার কারণেই। কারণ এই বিষয়টিকে ছোট করে দেখে পাত্তা দেয়নি বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তারা। ৯৯৯-এ কল দেওয়ায় তারা আমাদের সমস্যা সমাধানের উপায় বের করে দেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বেশি কিছু হয়নি। আল্লাহ না করুক কোন দুর্ঘটনা হলে সম্পূর্ণ মার্কেটের কয়েক কোটি টাকার মালামাল নিমেষেই শেষ হয়ে যেত। আশপাশে প্রায় ৪০টির মতো দোকান আছে। তারমধ্যে প্রায় ১৫টি ছিলো ইলেকট্রনিক্স সামগ্রীর দোকান। এসব দোকানের একেকটিতে ছিলো ৩০-৪০ লাখ টাকার মালামাল। ১৫ দোকানে তো কয়েক কোটি টাকার মালামাল আছে। এছাড়া পাশে আরো বিভিন্ন দোকান ছিল। সেখানেও অনেক কোটি টাকার মালামাল রয়েছে। পাশে রয়েছে একটি মসজিদও। যদি যথাসময়ে ব্যবস্থা না নেওয়া যেতো তাহলে কোটি কোটি টাকার মালামাল তো পুড়তোই, অনেক মানুষের প্রাণহানিও ঘটতো।’

Din Mohammed Convention Hall

তিনি আরও বলেন, ‘এটাই আমার প্রথম ৯৯৯ হেল্পলাইনে কল। এটি শুধু তিন সংখ্যার একটি নাম্বার নয়। এই তিন সংখ্যার মধ্যে রয়েছে অনেক ম্যাজিক। যে ম্যাজিক মুহূর্তের মধ্যেই সমস্যার সমাধান করে দেয়। এছাড়া অকর্মণ্য সরকারি কর্মকর্তাদের কর্মক্ষম করতে ৯৯৯-এ কারো একটা কলই যথেষ্ট। এছাড়া পাশাপাশি কালুরঘাট ফায়ার সার্ভিসকেও ধন্যবাদ জানাই।’

কালুরঘাট ফায়ার সার্ভিসের লিডার আবুল মনসুর চৌধুরী চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘খবর পেয়ে আমাদের একটি গাড়ি ঘটনাস্থলে যায়। এরপর আমি বিদ্যুৎ অফিসে কল দিলে বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তা এসে লাইনটি বিচ্ছিন্ন করেন। যদি সঠিক সময়ে এই সমস্যা সমাধান করা না যেতো তাহলে অনেক বড় দুর্ঘটনা ঘটতো। কারণ আশপাশে অনেক দোকানপাট ছিল। দোকানে অনেক টাকার মালামাল ছিল।’

এনজে/এসএস

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm