s alam cement
আক্রান্ত
১০১৭৮৪
সুস্থ
৮৬৮০১
মৃত্যু
১৩০১

বিদেশি সব চ্যানেল বন্ধ চট্টগ্রামসহ সারা দেশে

0

চট্টগ্রামসহ সারা দেশে সব বিদেশি চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তথ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ অনুযায়ী এটি বাস্তবায়ন করছে ক্যাবল অপারেটররা।

ক্যাবল অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব)-এর সভাপতি এস এম আনোয়ার পারভেজ বলেন, ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত একটা সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। বলা হয়েছিল ১ অক্টোবর থেকে ক্লিন ফিড ছাড়া বিদেশি চ্যানেল বাংলাদেশে সম্প্রচার করা যাবে না। বিদেশি চ্যানেলে তো কম-বেশি বিজ্ঞাপন থাকেই, এর মধ্যে নাকি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হচ্ছে। তাই বাংলাদেশি চ্যানেলগুলো চলছে, বিদেশি চ্যানেল বন্ধ রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, বিদেশি সব চ্যানেলই বিজ্ঞাপন প্রচার করে। যেহেতু সরকার বিজ্ঞাপনমুক্ত বিদেশি চ্যানেল চাইছে, সেহেতু বিজ্ঞাপন প্রচার করে এমন চ্যানেল তো আমরা প্রচার করতে পারি না। তাই বিদেশি সব চ্যানেল বন্ধ রয়েছে।

চট্টগ্রাম মাল্টি চ্যানেল লিমিটেডের (সিএমসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিজাম উদ্দিন মাসুদ বলেছেন, ‘সরকারি নির্দেশনা মেনে বিদেশি যেসব চ্যানেলে বিজ্ঞাপন চলে সেগুলো দেখানো থেকে বিরত রয়েছি।’

চট্টগ্রাম নগরীর আকবরশাহভিত্তিক ক্যাবল অপারেটর গাজী ক্যাবলসের কর্মরত মোহাম্মদ ছিদ্দিক বলেন, সাধারণ মানুষ সরকারের সিদ্ধান্তের কথা না জানায় রাত থেকে ফোনে অস্থির করে ফেলছেন। অনেকে মনে করছেন, তাদের ক্যাবল লাইনে সমস্যা। আসলে তো এটা সরকারের সিদ্ধান্ত।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ জানান, আইন অনুযায়ী দেশে বিদেশি চ্যানেলগুলোর বিজ্ঞাপনমুক্ত (ক্লিনফিড) সম্প্রচার বাস্তবায়নে ১ অক্টোবর থেকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘১ অক্টোবর থেকে আমরা সারাদেশে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করবো। কোনও বিদেশি চ্যানেলে ক্লিনফিড দেখানো না হলে এবং মন্ত্রণালয়, টেলিভিশন ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন ও ক্যাবল অপারেটর ত্রিপক্ষীয় বৈঠকের মাধ্যমে ক্যাবল লাইনে সম্প্রচারের জন্য টেলিভিশনগুলোর নির্ধারিত ক্রমের ব্যত্যয় হলে বা কোনও ক্যাবল অপারেটর আইন ভঙ্গ করে নিজেরা বিজ্ঞাপন, অনুষ্ঠান প্রদর্শন করলে বা আইনের অন্য কোনও ব্যত্যয় ঘটালে সংশ্লিষ্ট চ্যানেল ডাউনলিংকের অনুমতিপ্রাপ্ত ডিস্ট্রিবিউটর এবং ক্যাবল অপারেটরদের ওপরই আইন ভঙ্গের দায় বর্তাবে এবং আগামীকাল (আজ শুক্রবার) থেকে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm