বায়েজিদে নারীকে অপহরণের চেষ্টা, দুই ভুয়া ডিবি পুলিশ আটক

ডিবি পুলিশ পরিচয়ে এক নারীকে জোর করে সিএনজি অটোরিকশায় উঠিয়ে নেওয়ার সময় দু’জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটকরা ভুয়া ডিবি পুলিশ বলে জানা গেছে।

সোমবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিকালে বায়েজিদ এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন বায়েজিদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সঞ্জয় কুমার সিনহা।

আটকরা হলেন মো. ইমন হোসেন মুন্না (৩৫) ও মো. আরাফাত (২২)।

জানা গেছে, গত ১৩ ফেব্রুয়ারি ভুক্তভোগী নারী রত্না মাদক ব্যবসা করে দাবি করে ১০ হাজার টাকা চাঁদা চায় ভুয়া ডিবি পুলিশ মুন্না। টাকা না দিলে রত্নাকে তার সঙ্গে যেতে হবে বলে জানান তিনি। পরে টাকা দিতে না চাইলে জোরপূর্বক একটি সিএনজি অটোরিকশা উঠিয়ে নেওয়ার চেষ্টার সময় রত্নার প্রতিবেশী ময়না বেগম অভিযুক্তদের আইডি কার্ড দেখাতে বলেন। আইডি কার্ড না দেখিয়ে রত্নাকে টানাহেঁচড়া করে সিএনজি অটোরিকশায় তোলার সময় মুন্না ও আরাফাতকে আটক করে চেষ্টা করে স্থানীয়রা।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের দু’জনকে হেফাজতে নেয়। একইসঙ্গে তাদের কাছ থেকে দুটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করে। মোবাইল ফোনে অভিযুক্ত মুন্নার পুলিশের পোশাক পরিহিত ছবি পাওয়া যায়।

বায়েজিদ বোস্তামী থানার ওসি সঞ্জয় কুমার সিনহা বলেন, সোমবার বিকালে নাছিমা বেগম রত্নার বাসায় গিয়ে মো. ইমন হোসেন মুন্না নিজেকে ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে ১০ হাজার টাকা দাবি করে। টাকা না দিলে জোরপূর্বক একটি সিএনজি অটোরিকশা উঠিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে রত্নার প্রতিবেশী ময়না বেগম অভিযুক্তদের কাছে পুলিশের আইডি কার্ড দেখতে চাইলে তখন ধরা খায় তারা।

অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানান ওসি।

আরএ/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!