বাঙালির ত্রাণকর্তা হয়ে এসেছিলেন বঙ্গবন্ধু-আইআইইউসিতে এমপি নদভী

0

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সারাবিশ্বে শোষিত ও স্বাধীনতাকামী মানুষের কাছে বিশ্ববন্ধু হিসেবে সমাদৃত হয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের (আইআইইউসি) বোর্ড অব ট্রাস্টের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী এমপি।

সোমবার (১৫ আগস্ট) আইআইইউসি অডিটোরিয়ামে আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের নির্যাতিত জনতার জন্য ত্রাণকর্তা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছিলেন।
এ জাতি যুগ যুগ ধরে যখন নির্যাতিত, নিষ্পেষিত হয়ে যাচ্ছিলো তখনই বঙ্গবন্ধু এ জাতির রক্ষাকারী হিসেবে নিজেকে সপে দিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধু অনগ্রসর এ জাতির মুক্তির লক্ষ্যে কিশোরকাল থেকেই সংগ্রামে লিপ্ত ছিলেন।’

ড. আবু রেজা নদভী বলেন, ‘বাঙালি জাতি-সত্ত্বার ভিত্তিতে আধুনিক, গণতান্ত্রিক মানবিক রাষ্ট্রের স্বপ্ন দেখতেন বঙ্গবন্ধু। তাঁর সততা, সাহসীকতা, অসাধারণ বুদ্ধিমত্তা, দেশপ্রেম ছিল অতুলনীয়। আপামর জনগণ তাঁর নেতৃত্বে আস্থাশীল হয়ে প্রাণ বিসর্জন দিয়ে অর্জন করেছে এই মাতৃভূমির স্বাধীনতা। আর সেই বঙ্গবন্ধুকে দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রকারীরা স্বপরিবারে হত্যা করে দেশকে পঙ্গুত্বের দিকে ঠেলে দিয়েছিল। কিন্তু বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে ষড়যন্ত্রকারীদের স্বপ্ন নস্যাৎ হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা আজ তাঁর নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠিত।’

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনের সংসদ সদস্য ড. আবু রেজা নদভী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু ইসলামের জন্য যে কাজ শুরু করেছিলেন সে কাজ সমাপ্ত করছেন এখন শেখ হাসিনা। জননেত্রী শেখ হাসিনা ইসলামী শিক্ষাকে দেশে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করে মুসলিম উম্মাহ’র জন্য দুরদর্শি ও কালজয়ী খেদমত করেছেন।’

Yakub Group

তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ৫৬০টি মডেল মসজিদ তৈরি করেছেন সারা দেশে। বিএনপি-জামায়াত সরকার পরিচালনার সময় একটি মডেল মসজিদ তৈরি করারও চিন্তা করতে পারেনি এই দেশে। ইসলামের কথা তারা কেবল মুখে মুখে বলে বেড়িয়েছিলো। বিপরীতে এ দেশে একজন দায়ী ইলাল্লাহ’র ভূমিকা পালন করে চলেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা।’

বঙ্গবন্ধু রিসার্চ সেন্টার ফর ইসলাম এন্ড ইন্টাররিলিজিয়াস ডায়ালগের (বিআরসিআইআইডি) পরিচালক ও ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের চেয়ারম্যান মো. সরোয়ার আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইআইইউসি’র বোর্ড অব ট্রাস্টের সদস্য এবং ফাইন্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান ড. ইঞ্জিনিয়ার রশীদ আহমেদ চৌধুরী।

আইআইইউসি’র উপাচার্য প্রফেসর আনোয়ারুল আজিম আরিফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. মছরুরুল মওলা, ট্রেজারার প্রফেসর ড. মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. আখতার সাঈদ, রেজিস্ট্রার এ.এফ.এম. আখতারুজ্জামান কায়সার, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আব্দুল কাদের মাসুম, ফিমেল একাডেমিক জোনের কো-অর্ডিনেটর ফারহানা ইয়াসমিন চৌধুরী। অনুষ্ঠান শেষে মোনাজাত পরিচালনা করেন আইআইইউসি শরীয়াহ অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. শাকের আলম শওক।

এদিকে আলোচনা অনুষ্ঠান শুরুর আগে আইআইইউসি বোর্ড অব ট্রাস্টের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী’র নেতৃত্বে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় আইআইইউসি পরিবার।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm