বহদ্দারহাটে ছাত্র ও যুব স্কোয়ার্ডের অবস্থান কর্মসূচি

চট্টগ্রাম নগরীর বহদ্দারহাট মোড়ে ছাত্র ও যুব স্কোয়ার্ডের উদ্যোগে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের নামে সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

শনিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) নগরীর বহাদ্দারহাট মোড়ে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিটি মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী।

সিটি মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ‘বিএনপির আন্দোলন কি নিয়ে? আন্দোলনের নামে মানুষ হত্যা, অগ্নি সংযোগ, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে নৈরাজ্য সৃষ্টির মূল উদ্দেশ্য। আজ কোথাও বিএনপি-জামায়াত বিভাগীয় সমাবেশের নামে বিশৃঙ্খলা করলে সমুচিত জবাব দিতে আমরা প্রস্তুত। তাই সাবধান হয়ে যান, চট্টগ্রামে শান্তিশৃঙ্খলা বিনষ্ট করার চেষ্টা করবেন না।

তিনি বলেন, ‘চট্টগ্রামে মানুষ খুবই শান্তিপ্রিয়, কিন্তু গর্জে উঠলে দাবিয়ে রাখা যায় না। সমাবেশের নামে পুলিশের ওপর হামলা করবেন, গাড়ি ভাঙচুর করবেন, মানুষের জানমালের ক্ষতি করবেন না। তখন কিন্তু ছাড় দেওয়া হবে না।’

অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর আব্দুর সবুর লিটন, কাউন্সিলর আব্দুস সালাম মাসুম, ওমর গণি এমইএস কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ওসমান গণি আলমগীর, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ- সম্পাদক ও ওমর গণি এমইএস কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান তারেক, কাউন্সিলর কাজী নুরুল আমিন মামুন, কাউন্সিলর মোবারক আলী, কাউন্সিলর নূর মোস্তফা টিনু, সাবেক ছাত্রনেতা আব্দুর রাজ্জাক, সেলিম উদ্দীন।

নগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত কচির সভাপতিত্বে ও চান্দগাঁও থানা ছাত্রলীগের সভাপতি নূরন্নবী সাহেদের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন নগর ছাত্রলীগের সহ সম্পাদক এম হাসান আলী, মহিউদ্দিন মানিক, সাজ্জাদ চৌধুরী, সাজ্জাদ আলম, শাহাদাত হোসেন হিরা, আবদুল হাকিম ফয়সাল, নুর উদ্দিন তুফান, সালাউদ্দিন কাদের আরজু, আবু সাঈদ মুন্না, হাসান রুমেল, আমির হোসেন, আরিফুল ইসলাম, তৌহিদুল ইসলাম বাবু।

আরও বক্তব্য রাখেন রায়হান উদ্দীন, আনোয়ারুল কবির আকাশ, সাগর দাস, মোহাম্মদ তারেক, আবদুলাহ ফয়সাল, মনিরুল আলম, জাহেদুল ইসলাম, বিজয়, ফারদিন ইসলাম চৌধুরী, ফাহিম শাহ, মাহি ফয়সাল, আমিনুল ইসলাম রুহান, ইশতিয়াক গণি ইফতি, প্রান্ত দাস, দীপ্ত,জয় দাশ।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!