বন্দরও থামাতে পারেনি রাউন্ড লিগে অপরাজিত চট্টগ্রাম আবাহনীকে

0

গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে শক্তিশালী এফএমসি স্পোর্টসকে হারিয়ে চট্টগ্রাম প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগের শুরু করেছিল চট্টগ্রাম আবাহনী। এরপর একের পর এক ম্যাচ জিতে সবার আগে সুপার ফোর নিশ্চিত করার পর গ্রুপের শেষ ম্যাচে শক্তিশালী চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ ক্রীড়া সমিতিও আটকাতে পারেনি চট্টগ্রাম আবাহনীর জয়রথ।

সোমবার (৭ মার্চ) চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত প্রিমিয়ার লিগের ২৫ নম্বর ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনী ৩২ রানে হারায় চট্টগ্রাম বন্দও কর্তৃপক্ষ ক্রীড়া সমিতিকে।

সকালে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় চট্টগ্রাম আবাহনী। দলের রানের খাতায় ১৬ রান যোগ হতেই সাজঘরে ফিরে যান দলের প্রথম তিন ব্যাটসম্যান। আউট হওয়া মিনহাজ, সাঞ্জু ও ইমরান কেউ নিজেদের রান দু অঙ্কের ঘরে নিয়ে যেতে পারেননি।

এরপর চার ও পাঁচে ব্যাট করতে নামা শোয়েব ও মহিউদ্দিন দলের প্রাথমিক বিপর্যয়ে হাল ধরেন। দলের রান ৮৩-এ যাওয়ার পর ৩৭ রান করা শোয়েবের আউটের মধ্যদিয়ে ভাঙে এ জুটি। এরপর আবারও ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে চট্টগ্রাম আবাহনী। ৮৩ থেকে দলের রান ১১৩-তে যেতেই আবাহনী হারিয়ে ফেলে ৭ উইকেট। নয় নম্বরে নামা দলীয় অধিনায়ক সাজ্জাদুল হক রিপন ২২ রান করে দলীয় রান কিছুটা ভদ্রস্থ চেহারায় নিয়ে যান। তাকে যোগ্য সহযোগী দেন মহিউদ্দিন। তিনি আউট হওয়ার আগে খেলেন ম্যাচ সর্বোচ্চ ৪৬ রানের ইনিংস। এরপরও আবাহনী মাত্র ৪২.৩ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে ১৫০ রান করে।

চট্টগ্রাম বন্দরের হয়ে মনির নেন ৪টি উইকেট। এছাড়া, রনি ও তন্ময় নেন ২টি করে উইকেট।
জবাব দিতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট হারায় বন্দর। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ইনজামাম ও রুবেল দ্রততার সাথে রান তুলে আবাহনীর কপালের ভাজ চওড়া করতে থাকেন। তখনই ফিনিক্স পাখির মতো আবাহনীকে জয়ের রাস্তা দেখাতে শুরু করেন বাঁহাতি স্পিনার অভি আহমেদ নোবেল। তিনি একের পর এক চট্টগ্রাম বন্দরের ব্যাটসম্যানদের প্রাণ নিজের ঝুলিতে নিতে থাকেন।

ইনজামাম (৩১ রান), রুবেল (১৭ রান), জাতীয় তারকা আশরাফুল (১৩ রান), আবির (২১ রান) ও তারেককে (৯ রান) তার স্পিন ফাঁদে ফেলে আউট করেন। তার সাথে যোগ দেন আরেক বাঁহাতি স্পিনার শোয়েব। ফলে চট্টগ্রাম বন্দও ১৫১ রানের লক্ষ্যে দৌঁড়াতে গিয়ে মাত্র ১১৮ রানে অলআউট হয়ে যায়।

অভি আহমেদ নোবেল মাত্র ১৯ রান দিয়ে তুলে নেন ৬ উইকেট। শোয়েব নেন ৩ উইকেট।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm