ফটিকছড়িতে ভণ্ড ফকির আটক

0

চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে আবদু শুক্কুর নামের এক ভণ্ড ফকিরকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার (৯ অক্টোবর) ফটিকছড়ির পাইন্দং ইউনিয়নের বেড়াজালি এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

তার বিরুদ্ধে এলাকার সহজ সরল লোকদের সরলতার সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন তাবিজ, পানি পরা, ঝাড়ঁফুক করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, হাইদচকিয়া গ্রামের ফরেস্টার দোকানের পশ্চিম পাশের বাড়ির নুরুল আলমের সন্তান ভণ্ড শুক্কুর ফকির। যার কোনো ধর্মীয় জ্ঞান নেই সে অনেক দিন যাবত এলাকার সাধারণ মহিলাদের বিভিন্ন অসুখের চিকিৎসা দেওয়ার কথা বলে পানিপরা দিয়ে টাকা হাতিয়ে নিত। তার এমন ভণ্ডামীর বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রেক্ষিতে পাইন্দং ইউপি চেয়ারম্যান একেএম সরোয়ার হোসেন স্বপন বিচারের মাধ্যমে মানুষ ঠকানোর এ কাজ না করতে নিষেধ করেন। তখন থেকে কিছু দিন নীরব থাকার পর সে আবারো একই কাজ শুরু করলে গতকাল সাধারণ জনগণ পাইন্দং ইউনিয়নের বেড়াজালি গ্রামে একটি বাড়ি থেকে তাকে আটক করে। পরে তারা পুলিশকে খবর দিলে ফটিকছড়ি থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে বেড়াজালি এলাকার পাইন্দং ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন জানান, ভণ্ড শুক্কুর ফকির মঙ্গলবার রাতে এক প্রবাসীর ঘরে রাত কাটানোর খবর পেয়ে বুধবার সকালে এলাকার জনগণ তাকে আটক করে পুুলিশকে দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে থানায় নিয়ে যায়। যে ঘর থেকে তাকে আটক করা হয় সে ঘরে প্রবাসীর স্ত্রী ও দুই যুবতী মেয়ে ছিল। সে এ ঘরে রাতের বেলায় লুকিয়ে লুকিয়ে ঢুকতো।

জানা যায়, তথাকথিত শুক্কুর ফকির দীর্ঘদিন ধরে ছৈয়দ আবেদ শাহ মনসুর নির্দেশিত বিশ্বের সকল আউলিয়াদের বার্ষিক ওরশ শরীফ উদযাপনের কথা বলে এলাকায় নানা অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত বলে এলাকাবাসী কর্তৃক অভিযোগ রয়েছে।

ইতিপূর্বে শুক্কুর ফকিরের এসব অনৈতিক কর্মকাণ্ড বন্ধ করার প্রতিবাদে এলাকায় মিছিল মিটিংসহ স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে শালিশও অনুষ্ঠিত হয়। সে সময় ভণ্ড শুক্কুর ফকির এলাকায় কোনো প্রকার ওরশ বা অনৈতিক কাজ করবে না বলে জনপ্রতিনিধি বরাবর মোছলেখা দেয়। এরপরও কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তির ইন্ধন ও আশ্রয় প্রশ্রয়ে তার এসব অনৈতিক কর্মকাণ্ড বাড়তে থাকে।

ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাবুল আক্তার বলেন, বেড়াজালি এলাকার জনগণ শুক্কুর নামের এক ভণ্ড ফকিরকে আটকের কথা জানালে তাকে পুলিশ পাঠিয়ে থানায় নিয়ে আসা হয়। বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

এইচটি/এএইচ

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন